অটোপাস নয়, মূল্যায়নের মাধ্যমেই উত্তীর্ণ হচ্ছে শিক্ষার্থীরা: শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল

121
শিক্ষা মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ফাইল ছবি।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে বিভিন্ন পরীক্ষা বাতিল করা হলেও পরীক্ষার্থীদের অটোপাস দেয়া হচ্ছে না বরং মূল্যয়নের মাধ্যমেই শিক্ষার্থীরা উত্তীর্ণ হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

২১ অক্টোবর বুধবার দুপুরে মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার বিষয়ে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, অটোপাস কথাটি বার বার আসছে। কিন্ত এখানে অটোপাসের কোনো বিষয় নেই। অটোপাস কেউ হচ্ছে না, মূল্যায়িত হচ্ছে। গঠিত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী মূল্যায়নের ভিত্তিতে তাদের উত্তীর্ণ করা হচ্ছে।

মহিবুল হাসান নওফেল বলেন, শিক্ষার্থীদের কৃতকার্য-অকৃতকার্য হওয়ার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। কিন্তু উন্নত বিশ্বে কাউকে অকৃতকার্য করা হয় না। কারণ কেউ অকৃতকার্য হওয়া মানে আমি প্রতিষ্ঠান হিসেবে তাদের কৃতকার্য করাতে পারিনি। তাই সেভাবেই তাদের মূল্যয়ন করা হয়। আমরাও সেদিকেই যাবো। ভবিষ্যতেও মূল্যয়নের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের স্কিল দেখতে হবে। কেউ কৃতকার্য না হলে কিন্তু সেটা আমাদেরই দুর্বলতা।

তিনি আরো বলেন, মূল্যয়ন করার বিষয়ে এখন থেকেই আমাদেরর পরিকল্পনা নেয়া প্রয়োজন। এটি একটি কাঠামোর মধ্যে আনতে হবে। মূল্যায়নের জন্য মূল্যায়ন কেন্দ্র তৈরির বিষয়টি পরিকল্পনাধীন। একটি আইনী সংস্থা করার পরিকল্পনাও আছে। এ বিষয়ে গবেষণা করে একটি স্থায়ী ভিত্তি দেয়ার চিন্তা রয়েছে।

এ সময় আগামী বছরের এসএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, আমরা এখনও বলতে পারছি না সয়মতো আগামী বছরের সব পরীক্ষা নিতে পারব কিনা। তা নির্ভর করবে করোনা পরিস্থিতির ওপর। এখনও অনেকে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। অনেকে সমাবেশও করছেন। আমরা সবাই যদি সচেতন থাকি, তাহলেই কেবল অবস্থার দ্রুত উন্নতি হবে। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নিতে পারব। চলামন পরিস্থিতিতে কোনো কিছু অনুমান করা সম্ভব না।

অনলাইনে এ সময় যুক্ত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান।

SHARE