‘আমি মন্ত্রী হলে ১০ ঘণ্টায় মশা দমনের ওষুধ নিয়ে আসতাম’- কর্ণেল অলি

688

||দেশরিভিউ ডেস্ক||

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় কারওয়ান বাজারে এলডিপির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি ও জাতীয় মুক্তিমঞ্চের আহ্বায়ক কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বলেছেন, আমি মন্ত্রী থাকলে ১০ ঘণ্টায় বিমানে করে এডিস মশা দমনের ওষুধ নিয়ে আসতাম।

কর্নেল অলি অভিযোগ করেন, দেশে যখন ডেঙ্গুর মহামারি চলছে তখন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মালয়েশিয়া গেছেন। সমালোচনার মুখে ফেরত এসেছেন। প্রধানমন্ত্রী গত ২০ দিন দেশে নেই। কেন নেই, লন্ডনে তিনি কী করছেন এ বিষয়ে দেশের মানুষ অবহিত নয়।

তিনি বলেন, দেশ থেকে প্রতিদিন অনেক বিমান ছেড়ে যায়। আবার বিদেশ থেকে অনেক বিমান আসে। সরকার ইচ্ছা করলে বিমানে অতি দ্রুত এডিস মশার ওষুধ আনতে পারত।

দুই মেয়র ও আওয়ামী লীগের নেতাদের মুখ বন্ধ রাখতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের যে নির্দেশ দিয়েছেন সে জন্য তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে অলি আহমদ বলেন, আসলে ওবায়দুল কাদের ডেঙ্গুর মহামারির বিষয়টি উপলব্ধি করতে পেরেছেন। বুঝতে পেরেছেন দেশে ডেঙ্গুর সাইক্লোন বয়ে যাচ্ছে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, পাকিস্তানি বাহিনী একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় খালেদা জিয়াকে যে সম্মান করেছিল, নিজ দেশের সরকার তাকে সেই সম্মান করছে না। উল্টো কারাগারে রেখেছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার বয়স ও দেশের প্রতি তার অবদানের কথা বিবেচনায় রেখে চিকিৎসার জন্য অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কল্যাণ পার্টির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইব্রাহিম বীরপ্রতীক, এলডিপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদত হোসেন সেলিম, জাগপার সহসভাপতি রাশেদ প্রধান, এনডিপির সভাপতি কারী আবু তাহের, জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব মুফতি মনির হোসেন কাসেমী, জাতীয় দলের মহাসচিব রফিকুল ইসলাম, এলডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, কল্যাণ পার্টির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাহিদুর রহমান তামান্না, বিএনপি নেতা মেজর অব. সারোয়ার প্রমুখ।

SHARE