আল্লাহর দোহাই ঘরে থাকুন, নারায়ণগঞ্জবাসীকে শামীম ওসমান

142

।।দেশরিভিউ নিউজডেস্ক।।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা থেকে রক্ষা বাঁচতে মহান আল্লাহর দোহাই দিয়ে নারায়ণগঞ্জবাসীকে বাসায় অবস্থান করার অনুরোধ জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান।

মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) রাতে নারায়ণগঞ্জের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তিনি গণমাধ্যম কে এসব কথা বলেন।

নারায়গঞ্জের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে শামীম ওসমান বলেন, সত্যি বলতে কি নারায়ণগঞ্জের অবস্থা যতটা ভালো আমরা মনে করছি, আসলে ততোটা ভালো না। নারায়ণগঞ্জে করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা নিয়ে আমি সরকারের সর্বোচ্চ মহলে আলোচনা করেছি। আমরা জনগণকে পুরোপুরি সচেতন করতে পারছি না।

পরিপেক্ষিতে সরকারের পক্ষ থেকে সেনাবাহিনীসহ অন্য আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য, জেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধির সমন্বয়ে পুরো নারায়ণগঞ্জ জেলাকে মঙ্গলবার লক ডাউন করা হয়েছে। এ জন্য আমি নারায়ণগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে জাতিরজনকের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে কৃতজ্ঞা ও দোয়া জানাচ্ছি।

শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জ সবচেয়ে বেশি ইফেকটিভ এলাকা হয়ে গেছে। নারায়ণগঞ্জের পরাতন কোর্ট এলাকায় চিপ জুডিশিয়ালের জন্য একটি ৮তলা ভবন করা হয়েছে। ওই বিল্ডিংয়ে এখনো কার্যক্রম শুরু হয়নি। ওই বিল্ডিংয়ে অনায়াসে ৩০০ থেকে ৪০০ বেডের একটি কমপ্লিটলি স্পেশালি করোনাভাইরাসের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার কাম হাসপাতাল করা যায়। সেই জন্য আমি প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি।

অনতিবিলম্বে এই বিল্ডিংটাকে করোনাভাইরাস বিষয়ে কমপ্লিটলি ব্যবহার উপযোগী করা জন্য অনুরোধ করছি। সেখানে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সেনাবাহিনীর সমন্বয় নিশ্চিত করারও অনুরোধ জানাছি।

শামীম ওসমান নারায়ণগঞ্জবাসীকে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আপনারা বর্তমান পরিস্থিতিতে সরকারকে সহযোগিতা করুন। এমন কোন মৃত্যু ডেকে আনবেন না যে মৃত্যুতে বাবা তার সন্তানের লাশ ধরতে পারে না। সন্তান তার মায়ের লাশ ধরতে পারে না। মা তার মেয়ের লাশ ধরতে পারে না। স্ত্রী তার স্বামীর লাশ ধরতে পারে না।

এমন মৃত্যু আমাদের কারোই কাম্য নয়। সেখানে সচেতনা ছাড়া আর কোন পথ আমাদের সামনে নাই। আপনারা ঘরে থাকুন, যারা নিন্মবিত্ত পরিবার আছেন কোন চিন্তা করবেন না। আল্লাহর হুকুম যতোক্ষন আছে, যতোক্ষন আমাদের শরীরে প্রাণ আছে- ইনশাল্লাহ আমরা নারায়ণগঞ্জে সবাই মিলে আপনাদের পাশে ছিলাম এবং আছি এবং যতোক্ষন পর্যন্ত সুস্থ আছি আপনাদের পাশে থাকবো।

এখানে খাদ্য সংকট হবে না, সরকারি খাদ্য আছে আমরা বেসকারিভাবেও আপনাদের কাছে খাদ্য পৌঁছাবো। শুধু এই জন্য একটাই দরকার শৃংখলা, এটা না থাকলে এই বিষয়টিকে আমরা সুচারুভাবে পরিচালনা করতে পারবো না। সেখানে আপনাদের সহযেগিতার প্রয়োজন। আশা করছি সবাই সচেতনার মাধ্যমে এগিয়ে আসবেন।

শামীম ওসমান বোখারী শরীফের ৬৩৩ নাম্বার একটি হাদিসের উদ্ধৃতি দিয়ে নারায়ণগঞ্জের আলেম ওলামা, মসজিদের ইমামদের উদ্দেশ্যে বলেন, (হযরত নাফি (রা) থেকে বর্ণিত) ইবনে উমর (রা) একবার প্রচন্ড শীত ও বাতাসের রাতে আযান দিলেন। তারপর ঘোষনা করলেন, প্রত্যেকেই নিজ নিজ আবাসে নামাজ আদায় করে নাও।

এরপর তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা) প্রচন্ড শীত ও বৃষ্টির রাত হলে মুআযযিনকে এ কথা বলার নির্দেশ দিতেন-প্রত্যোকে নিজ নিজ আবাসে নামাজ আদায় করে নাও। এই হাদিসের নির্দেশনা যথাযথভাবে যাচাই করে করোনাভাইরাসের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে আল্লাহ রাসুলের নির্দেশনা মেনে চলার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানান।

শামীম ওসমান বলেন, মানুষকে সচেতন ও ঘরে থাকতে আইনশৃংখলা বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য আমি আমাদের স্থানীয় নেতা ও কাউন্সিলরদের নির্দেশ দিয়েছি। প্রয়োজনে প্রশাসনকে কঠোর হওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, জেলা সিভিল সার্জন ও উপজেলা প্রশাসনের সব কর্মকর্তাদের প্রতি কৃতজ্ঞা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আপনারা যেভাবে নিজের জীবন বাজি রেখে নারায়ণগঞ্জবাসীকে করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত রাখতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, এ জেলার মানুষ আপনাদের জন্য দোয়া করবেন।

SHARE