ইবি শিক্ষকের বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

34

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনায় বিভাগের সম্মান রক্ষার্থে মানববন্ধন করেছে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার দুপুরে ক্যাম্পাসের প্রশাসন ভবনের সামনে এ মানববন্ধন করে তারা। সূত্র পরিবর্তন ডট কম।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক সঞ্জয় কুমার সরকার নিজ বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্রীকে নিপীড়ন ও মানসিক হেনস্থা করেন বলে অভিযোগ ওঠে। ওই শিক্ষার্থী মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। পরে ওই ছাত্রীকে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে কর্তৃপক্ষ। বিভিন্ন গণমাধ্যেমে সংবাদ প্রকাশিত হলে সর্বমহলে অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির জোর দাবি ওঠে।

শনিবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ওই শিক্ষকের বিচার দাবি করে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন শুরু করে। পর দিন রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় শিক্ষার্থীরা একই দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ওই বিভাগের সামনে গেলে বিভাগের শিক্ষার্থী কর্তৃক বাধার মুখে পড়ে। পরে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান ঘটনাস্থলে গেলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বহিরাগত বলে অভিযোগ করে। পরে প্রক্টর আন্দোলনকারী দুই শিক্ষার্থীর পরিচয়পত্র কেড়ে নেন।

মঙ্গলবার বিভাগের সম্মান বাঁচাতে ঘটনার পঞ্চম দিনে অভিযুক্ত শিক্ষকের পক্ষে মানববন্ধন করে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। তবে মানববন্ধনে ২য় বর্ষের কোন শিক্ষার্থী অংশ নেয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, ‘বিভাগের কিছু শিক্ষক টিউটোরিয়াল ও নম্বরের ভয় দেখিয়ে তাদের মানববন্ধনে পাঠিয়ে দেয়।’
আন্দোলনে অংশ নেয়া বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও শেখ হাসিনা হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়াংঙ্কা দাবি করেন,‘সঞ্জয় স্যারের কোন অপরাধ নেই। তিনি নির্দোষ। প্রশাসনের কাছে ৮ জুলাই বিভাগে হামলাকারীদের বিচারের দাবি জানাই। ঘটনার ২দিন পর মানববন্ধন করছেন কেন ..? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি কোন সৎ উত্তর দিতে পারে নি।

বিভাগের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক সুতাপ কুমার জানান,‘ঘটনার দিন আমি আমার কক্ষে ছিলাম। শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে বিভাগের সামনে এসেছিল। পরে প্রক্টর তাদের বিভাগ থেকে সরিয়ে দেয়। তবে আজকে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছে এ বিষয়টি আমি জানি না।’

দেশরিভিউ/এস এস