উচ্চ শিক্ষার মানোন্নয়নে,গঠন করা হবে উচ্চ শিক্ষা কমিশন: প্রধানমন্ত্রী

309

উচ্চ শিক্ষার মানোন্নয়নে, উচ্চ শিক্ষা কমিশন গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ সরকারের নানামুখী পদক্ষেপের কারণেই বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বুধবার (২৫ জুলাই) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক প্রদত্ত প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক ২০১৭’ প্রদান অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি। জনসেবায় দেশের প্রতিটি বিভাগে একটি করে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা হবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

উন্নয়নের গতি অব্যাহত রাখতে সবাইকে মনোযোগী হওয়ার আহবান জানান তিনি। এর আগে দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে, বিভিন্ন অনুষদে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়ায় ১৬৩ জন শিক্ষার্থীকে ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ তুলে দেন শেখ হাসিনা।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, ‘উচ্চ শিক্ষার মান উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। আর এই প্রকল্পের অর্থায়নে ৪২২টি রিসার্চ প্রজেক্ট ২ টি টেকনোলজি ট্রান্সফার অফিস, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভার্চুয়াল ক্লাসরুম ছাড়াও ক্যাম্পাস নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। গবেষণার প্রকৃত পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে। এসব কিছু দেখার জন্যে মঞ্জুরি কমিশন রয়েছে। তবে, তা যে আকারে আছে তাতে এটা সম্ভব না। সে কারণে আমরা একটা উচ্চ শিক্ষা কমিশন গঠন করবো। তবে, যা কিছু হবে তা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশিত পথেই হবে।’

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তোমাদের মেধা, জ্ঞান ও কর্মের ফলে দেশের উন্নয়নে অধিক গতি সঞ্চারিত হবে ও সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে। ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত, উন্নত সমৃদ্ধ দেশ গড়তে শিক্ষিত জাতি ও মেধাবী জনগোষ্ঠীর বিকল্প নেই।’

তিনি বলেন, ‘দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকলে, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মানব সম্পদ উন্নয়নের মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করবো।’

তিনি বলেন, ‘এবার ১৬৩ জন স্বর্ণপদক পাওয়া শিক্ষার্থীর মধ্যে ১০১ নারী। ছেলেদের চেয়ে ভালো করছে মেয়েরা। মেয়েদের অভিনন্দন জানাই। ছেলেদেরও পড়াশোনায় আরো মনোনিবেশ করতে হবে। আমরা চাই সমানে সমান থাকুক। লেখাপড়ার যে সুযোগ আমরা করে দিয়েছি ছেলেরা তা কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যাক। ছেলেরা পিছিয়ে থাকবে কেন?

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একটা সময় মেয়েদের অবহেলা করা হতো, মেয়েরা পিছিয়ে ছিল। এখন সেটা নেই। সমানতালে এগিয়ে যাচ্ছে তারা। কোনো কোনো ক্ষেত্রে মেয়েরা এগিয়ে যাচ্ছে।’

‘দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আজকের ছেলে-মেয়েরা আগামী দিনে নেতৃত্ব দেবে, প্রধানমন্ত্রী হবে, দেশ পরিচালনা করবে,’ বলেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘উচ্চশিক্ষার গুণগতমান নিশ্চিত করতে জাতীয় সংসদে ‘অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল আইন’ পাস হয়েছে এবং শিগগিরই এর কার্যক্রম শুরু হবে।বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে মানসমৃদ্ধ করা এবং তাদের তদারকি, নিয়ন্ত্রণ ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য ‘উচ্চশিক্ষা কমিশন’ প্রতিষ্ঠার কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে।’

স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমরা দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে তুলে দিয়েছি। এ গতি যেন থেমে না যায়। এ দায়িত্ব তোমাদের। কেউ যেন বলতে না পারে বাংলাদেশ ভিক্ষুকের দেশ।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এখন উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছি। এটা ধরে রেখে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। আমরা এবার ৭ দশমিক ৭৮ ভাগ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। এটাও ধরে রাখতে হবে। কারণ, প্রবৃদ্ধি বেশি থাকলে জনগণ তার সুফল পায়। ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয় এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে বাংলাদেকে গড়তে চাই।’

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান। অনুষ্ঠানের শুরুতে মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. দিল আফরোজ বেগম স্বাগত বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানটি দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে বড় পর্দায় প্রদর্শন করা হয়।

দেশরিভিউ/এস এস