কাঁদার কারণ জানালেন নেইমার!

221

কোস্টারিকার বিপক্ষে ব্রাজিলের ২-০ গোলের দারুণ জয়। এমন জয়ে ফিলিপ কুতিনহোর পাশাপাশি এক গোল করে অবদান রেখেছেন নেইমারও। শেষ বাঁশি বাজার পর সতীর্থদের জড়িয়ে ধরে উল্লাস করবেন, এমনটাই তো স্বাভাবিক। কিন্তু এ কী! রেফারির বাঁশি বাজতে না বাজতেই   ব্রাজিলিয়ান তারকা জয় উদযাপন না করে মাঠেই মুখ ঢেকে কান্না শুরু করলেন। কেন কাঁদছিলেন নেইমার? প্যারিস-সেইন্ট-জার্মেই (পিএসজি) তারকা নিজেই জানালেন কান্নার কারণ।

বিশ্বকাপে ২০১৪ সালে কোস্টারিকার এসেছিল সেরা সাফল্য। ব্রাজিল বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছেছিল দলটি। এমন দলের বিপক্ষে পাঁচবারের বিশ্বকাপ জয়ী ব্রাজিল ফেবারিট, এমনটাই তো স্বাভাবিক। কিন্তু ‘ই’ গ্রুপের গতকাল ম্যাচে ব্রাজিলকে মোটেও  ছাড় দেয়নি কোস্টারিকা। পুরো ৯০ মিনিটজুড়েই তারকায় ঠাসা ব্রাজিলকে ভুগিয়েছে কেইলর নাভাসের দলটি। কিন্তু ইনজুরি টাইমের দারুণ দুই গোল পেয়ে নিশ্চিত ড্রয়ের আশংকা থেকে রক্ষা পাওয়া ব্রাজিল তারকা নেইমারকে দেখা গেল উদযাপন বাদ দিয়ে মাঠেই মুখ ঢেকে কাঁদছেন। প্রাপ্তির আনন্দে এমন কান্না অস্বাভাবিক নয়। প্রথম ম্যাচ ড্র করে নক আউট পর্বে ওঠার জন্য জয়টা যে ভীষণভাবে দরকার ছিল নেইমারদের।

নেইমারের কান্নাটা যে সুখেরই-স্বস্তিরই; তা বলে না দিলেও চলে। বারংবার ট্যাকলের শিকার হতে হতে, পড়ে যেতে যেতে পাওয়া গোলটি হয়তো সত্যিই ভীষণ স্বস্তি এনে দিয়েছে নেইমারকে। সেটাই গালে গড়িয়ে পড়েছে অশ্রু হয়ে। ইনজুরি থেকে ফিরে দলের প্রয়োজনে জ্বলে ওঠার একটা বাড়তি তাড়না তো ছিলই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সট্রাগ্রামে নেইমার জানালেন তেমনটাই। ম্যাচের পর এক পোস্টে নেইমার বলেন, ‘আমার জীবনে কোনো কিছুই সহজ ছিল না। এখনো সবকিছু সহজ নয়। আমি আসলে কীসের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি, সবাই জানে না। এই কান্না আনন্দের, সমস্যা কাটিয়ে উঠে জয়ের আনন্দের কান্না।’

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE