কাকরাইল মসজিদে ফের হাঙ্গামা

32

রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ জামাতের প্রধান কেন্দ্রে (মারকাজ) ফের প্রকাশ্যে দ্বন্দ্বে জড়িয়েছে সংগঠনটির দুটি পক্ষ। মসজিদ ও মাদ্রাসার কর্তৃত্ব নেয়াকে কেন্দ্র করে শনিবার দিবাগত রাত নয়টার দিকে দ্বন্দ্বে জড়ায় পক্ষ দুটি। মসজিদ থেকে এক পক্ষকে বের করে দেয়ায় সময় হাতাহাতি ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা গেছে, কাকরাইল মসজিদে ভেতরে থাকা অন্য গ্রুপটিকে হটাতে ভেতরে প্রবেশ করতে যায় সা’দপন্থীরা। এ সময় দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। মূলত কাকরাইল মারকাজ মসজিদ ও মাদ্রাসার কর্তৃত্ব নিতেই এমন দ্বন্দ্ব বলে জানা গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সেখানে যায়।

তাবলীগ জামাতের মধ্যে এই দ্বন্দ্বের সূত্রপাত কেন্দ্রীয় মারকাজ দিল্লির নিজামুদ্দিনে। সেখানকার আমীর মাওলানা সা’দ কান্দালভির বিতর্কিত মন্তব্যের পর অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়ে নানা দেশে। বাদ যায়নি বাংলাদেশও। এরপর দৃশ্যতই দুটি ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে তাবলীগ জামাত।

এ বছরের শুরুতেই অনেকটা প্রকাশ্যে চলে আসে দ্বন্দ্বের বিষয়টি। বিশ্ব ইজতেমায় সাদ কান্ধলভী ঢাকায় আসলেও তাকে টঙ্গীতে ইজতেমায় যেতে দেওয়া হয়নি। বিরোধিতার মুখে কাকরাইলে তিনি ফিরে যেতে বাধ্য হন।

সরকারের তরফ থেকে কয়েক দফায় সমঝোতার চেষ্টায় দু’পক্ষের মাঝে সাময়িক কিছুটা বরফ গলে। তবে ভেতরে ভেতরে দ্বন্দ্ব যে, আরো প্রকট হতে থাকে। তা স্পষ্ট হয় চলতি বছরের ২৮ এপ্রিল। সেদিন কাকরাইলে তাবলিগ জামাতের প্রধান কেন্দ্রে (মারকাজ) সংঘর্ষে জড়ায় সংগঠনটির দুটি পক্ষ। এরপর গতরাতে আবারও দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পরে দুই পক্ষ। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত করলেও উত্তেজনা বিরাজ করতে থাকে দুপক্ষের মধ্যেই।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE