কাদেরের নেতৃত্বে ভারত যাচ্ছেন আ.লীগের ২২ নেতা

55

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে দলটির ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল ভারত যাচ্ছে। আগামী ২২ থেকে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত দলটির নেতারা দেশটিতে অবস্থান করবেন। রোববার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ধর্মবিষয়ক উপ-কমিটির সভা শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ক্ষমতাসীন বিজেপির আমন্ত্রণে ২২ এপ্রিল আমরা ২০ জন ভারত সফরে যাব। ২৪ এপ্রিল দেশে ফিরে আসব। সেখানে বিভিন্ন ইস্যুতে পার্টি টু পার্টি আলোচনা হবে।’

ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলে রয়েছেন- সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পিযুশ কান্তি ভট্টাচার্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহাম্মদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, এ কে এম এনামুল হক শামীম, মেজবাহ উদ্দিন সিরাজ, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাহিত্য সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাস, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহম্মেদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আব্দুস সবুর, ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, স্বাস্থ্য সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, সদস্য গোলাম কবির রাব্বানী চিনু ও এস এম কামাল হোসেন।

এ সময় বিএনপির সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে বিএনপি নতুন খোয়াব দেখেছিল। কিন্তু, প্রধানমন্ত্রীর এক ঘোষণায় তাদের স্বপ্ন কর্পূরের মতো উবে গেছে। তাদের হাতে আর কোনো ইস্যু নেই। আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে তারা হতাশায় ডুবে আছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশে বর্তমানে শান্তি বিরাজ করছে, স্থিতিশীল পরিবেশ রয়েছে। আর এটাই বিএনপি সহ্য করতে পারছে না। এজন্য পহেলা বৈশাখের মত স্বতঃস্ফূর্ত, কালারফুল উদযাপনও তাদের ভালো লাগেনি। নোংরা রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়েছে।’

এ সময় আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ উপস্থিত ছিলেন।

দেশরিভিউ/শিমুল।