কালিয়ায় নানার বাড়িতে ঈদ করা হলো না শিশু সাদিকের

218

।।দেশরিভিউ।।
নড়াইলের কালিয়ার নানার বাড়িতে ঈদ করা হলো না নাতি সাদিকের (৯)। ঈদের একদিন আগে নদীতে গোসল করতে গিয়ে সে নদীগর্ভে তলিয়ে নিহত হয়েছে। সোমবার দুপুরে মধুমতি নদীর পহরডাঙ্গা নামক স্থানে ঘটেছে ওই ঘটনা। সে উপজেলার পহরডাঙ্গা গ্রামের রিজ্জাক শেখের নাতি। তাকে উদ্ধারের জন্য স্থানীয় লোকজনসহ ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট সহ একটি ডুবুরী দল ওই নদীতে উদ্ধার কাজ চালিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত দুইদিন আগে খুলনার রেলী গেটের বাসিন্দা আজাদ হোসেনের ছেলে সাকিদ তার মায়ের সাথে ঈদ করতে পহরডাঙ্গা গ্রামে নানার বাড়িতে আসে। ওইদিন দুপুর ১২ টার দিকে বাড়ির লোকদের অজান্তে তার দুই খালাতে ভাই সিয়াম ও নাঈমের সাথে ওই নদীতে গোসল করতে গেলে হঠাৎ করেই সাঁতার না জানা শিশু সাদিক নদীগর্ভে তলিয়ে যায়। তার খালাতো ভাইয়েরা বুঝতে পেরে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয়রা ছুটে এসে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা শুরু করে। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজনসহ স্বজনরা তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হলে, খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ এবং খুলনার ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল উদ্ধার কাজ চালিয়ে শিশু সাদিকের মরদেহ উদ্ধার করে।
নড়াগাতি থানা ওসি মো: আলমগীর কবির বলেন, শিশু সাকিকের পানিতে ডুবে মৃত্যুর ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা নেওয়া হয়েছে। অভিযোগ অনুযায়ী পরবর্তিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

SHARE