ক্যান্টিনে খাবার খেয়ে অসুস্থ হাজী দানেশের ১৮ শিক্ষার্থী

29

ক্যান্টিনের ভেজাল খাবার খেয়ে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) অন্তত ৪০ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তাদের মধ্যে বুধবার রাতে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ১৮ জনকে দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হলের তরিকুল ক্যান্টিনে ব্রয়লার মুরগী, আলুর ভর্তা ও খিচুড়ি খান প্রায় ৬০ জন শিক্ষার্থী। পরে তারা বমি, পেট ব্যথা, পাতলা পায়খানা ও জ্বরে আক্রান্ত হয়ে পড়লে প্রায় ৪০ জন বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন সেন্টারে চিকিৎসা নেন। সেখানে বুধবার দিনভর চিকিৎসা করালেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় বুধবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১৮ জন শিক্ষার্থীকে দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছাত্ররা হলেন- নজরুল (২১), সোহরাব (২১), নোমান (২১), কাওসার (২০), মুজিব (২০), রিফাত (২৪), আজগর (২১), আরিফ (২২), আবু রাসেল (২৩), সারোয়ার জাহান (২৩), আরিফ হোসেন (২২), ইয়াসিন আলী (২২), শুভ মরমু (২১), আব্দুর রহমান (২৪), উৎপল (২২), হাসেম (২১), ইয়াসির আরাফাত (২১) ও মেহেদী হাসান (২২)।

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের মেডিসিন কনসালটেন্ট ডা. ওয়াহেদুল হক জানান, ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীরা সবাই খাদ্যে বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত।

অসুস্থ ছাত্র মেহেদী হাসান জানান, হাবিপ্রবির জিয়া হলের ডাইনিং এর খাবারের মান ভালো না হওয়ায় তারা একই হলের তরিকুলের ক্যান্টিনে বেশ কিছুদিন ধরে খাবার খাচ্ছিলেন। কিন্তু তরিকুল ক্যান্টিনের খাবার ভেজাল হওয়ায় তাদের এই পরিণতি। ইতোপূর্বে একই ক্যান্টিনের খাবার খেয়ে আরও দু’বার ওই হলের ছাত্ররা অসুস্থ হয়ে পড়েছিল।

এ বিষয়ে বুধবার রাত ১২টায় হাবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. সফিকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি কিছুই জানেন না বলে জানান। সাংবাদিকদের কাছে বিষয়টি জানার পর তিনি খোঁজ নেবেন বলে জানান।

এ ব্যাপারে তরিকুল ক্যান্টিনের মালিক তরিকুল ইসলামের সাথে যোগযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE