গরমে ত্বকের যত্নে অনন্য অ্যালোভেরা

13

শীতের শেষে গরম হাওয়া বইছে বসন্তের বাতাসে। গ্রামে শীতল ভাব থাকলেও শহরে ভিন্ন চিত্র। রোদের আলোয় দুপুরে গরমের অনুভূতি। এই অনুভূতির প্রথম আঁচ লাগে আমাদের ত্বকে। বাইরের ধুলা-বালি আর রোদে ত্বকে নানা রকম ‍সমস্যা দেখা দেয়।

যারা স্বাস্থ্য সচেতন, ত্বকের নিয়মিত যত্ন নেন ও রূপচর্চা করেন তাদের জন্যে এই গরমে ঘৃতকুমারীর বিকল্প শুধুই ঘৃতকুমারী। সব ধরনের সমস্যা থেকে ত্বককে রক্ষা করতে ঘৃতকুমারী সবচেয়ে কার্যকরি প্রাকৃতিক উপাদান। যদিও অ্যালোভেরা নামেই এর পরিচিতি বেশি।

দারুণ কার্যকরি এই প্রাকৃতিক ভেষজের উপকারিতা জেনে নিন:

♻  রোদের পোড়াভাব দূর

রোদের পোড়াভাব দূর করতে অ্যালোভেরা বেশ কার্যকর। এছাড়াও ত্বককে মসৃণ রাখতে, দাগ মুক্ত করতে এবং ত্বকে ব্রণের উপদ্রব কমাতে এটি বেশ কার্যকরী। বাইরে থেকে ঘরে ফিরে অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করতে পারেন। এটি ত্বকে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন রোদে পোড়াভাব দূর হয়ে আপনার ত্বক মসৃণ আর উজ্জ্বল হবে।

♻  মেছতার দাগ দূর করতে

মেছতার দাগ দূর করতে অ্যালোভেরার নির্যাসের সঙ্গে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল মিশিয়ে আঙুলের ডগার মাধ্যমে আলতোভাবে ত্বকে খানিকক্ষণ ঘষতে পারেন। এছাড়া ঘৃতকুমারীর পাতা, শসা ও মধু একত্রে পেস্ট করে মেছতায় নিয়মিত লাগালে বেশ উপকার পাওয়া যায়। পাতার ভেতরের থকথকে অংশটা প্রতিদিন মেছতার ওপর লাগিয়ে মাসাজ করলে দাগ অনেকটাই হালকা হয়ে আসবে।

♻  ত্বক উজ্জ্বলে

 আপনি প্রতিদিন অ্যালোভেরা ব্যবহার করতে পারেন রাতে ঘুমানোর আগে। হাত দিয়ে জেল আলতো করে আপনার মুখে মাখুন। ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন আপনার ত্বক ফর্সা হচ্ছে।

♻  ব্রণ নিরাময়ে

অ্যালোভেরায় রয়েছে অ্যান্টি-ফ্লামেটরি, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান, যা ত্বকের ব্রণ নিরাময়ে সহায়তা করে। অ্যালোভেরার রস উপটান বা মুলতানি মাটির সাথে মিশিয়ে পোড়া অংশে লাগালে উপকার পাবেন। চালের গুঁড়ি স্ক্র্যাবার হিসেবে ব্যবহার করে থাকলে এর সাথে মেশাতে পারেন ঘৃতকুমারীর রস। এতে ত্বক পরিষ্কারের পাশাপাশি হয়ে উঠবে কোমল ও উজ্জ্বল। কমতে শুরু করবে ব্রণ।

♻  খুশকি নিরাময়ে

খুশকি দূর করতেও অ্যালোভেরার জুড়ি নেই। এর রস সপ্তাহে দুদিন চুলের গোড়ায় লাগিয়ে দেখুন, কমবে খুশকি। চুলে অ্যালোভেরা নিয়মিত লাগালে চুলের হারানো উজ্জ্বলতা ফিরে আসে। চুল হয় মোলায়েম ও ঝরঝরে।

♻  ওজন কমাতে

অ্যালোভেরায় রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট নামক উপাদান যা ওজন কমাতে সহায়তা করে। এছাড়া শরীরের অভ্যন্তরীণ নানা রোগ প্রতিরোধ ও প্রতিকার করে অ্যালোভেরা। বাড়ির টবে কিংবা খোলা জায়গায় ঘৃতকুমারীর গাছ লাগাতে পারেন। অ্যালোভেরার বাণিজ্যিক চাষ বাড়ছে বলে আপনি বাজারে পেয়ে যাবেন খুব সহজে।

দেশরিভিউ/শিমুল

SHARE