চট্টগ্রামের উন্নয়নে নিজের পরিকল্পনার কথা বললেন রেজাউল করিম চৌধুরী (ভিডিও)

527


।।দেশরিভিউ চট্টগ্রাম।।
চট্টগ্রামে একসময় অনেক সমস্যা ছিল জানিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরি বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের উন্নয়নে সর্বদা আন্তরিক ছিলেন।

মেয়র নির্বাচিত হলে প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে নগরবাসীর স্বাস্থ্য, শিক্ষা, যানজট, দূষণ সমস্যার সমাধান করার জন্য যা কিছু প্রয়োজন সব কিছুর উদ্যোগ তিনি গ্রহন করবেন।

দেশরিভিউ এর সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে দীর্ঘদিনের রাজনীতির অভিজ্ঞতাকে জনসেবার কাজে লাগাবেন জানিয়ে রেজাউল করিম বলেন, চট্টগ্রাম শহর একটি পর্যটন শহর। সেই পর্যটন শহরে কিছু ভূমিদস্যু পাহাড় কেটে সৌন্দর্য বিলীন করে দিচ্ছে। যেমন কর্ণফুলী নদী, চট্টগ্রামের প্রাণ, বাংলাদেশের প্রবেশদ্বার চট্টগ্রাম বন্দর। সেই কর্ণফুলী নদী দূষণের শিকার হচ্ছে। সুখে-দুঃখে, আন্দোলন-সংগ্রামে আমি চট্টগ্রামবাসীর সাথে ছিলাম। আগামীতেও এসকল সমস্যার সমাধানে কাজ করবো।

মেয়রপ্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রামে প্রধান সমস্যা ছিল জলাবদ্ধতা। সেই জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা ছয় হাজার কোটি টাকার উপরে বরাদ্দ দিয়েছেন। যেই জলাবদ্ধতা চট্টগ্রাম বাসীর জন্য অভিশাপ ছিল, যদি এই প্রকল্প শেষ হয় তাহলে জলাবদ্ধতার সমস্যা অনেকাংশে কমে যাবে।

রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, সমন্বিত প্রচেষ্টা ছাড়া এককভাবে কোনো কিছু করা পৃথিবীর কারও পক্ষে সম্ভব নয়। যদি চট্টগ্রামবাসী আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে তাহলে আমি ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবী, সুশীল সমাজ, বিশেষজ্ঞ যারা আছে এবং নগর পরিকল্পনাবিদ, তাদের সাথে পরামর্শ করে একটা সুস্থ-সুন্দর নগর কিভাবে গড়া যায় সেই ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

নগরবাসীর প্রত্যাশার কথা উল্লেখ করে এসময় তিনি বলেন, সাধারণত জনগনের একটা প্রত্যাশা থাকে। তারা চায় সুন্দর পরিচ্ছন্ন, মাদক-সন্ত্রাস ও দূষণ মুক্ত একটি নগরী। এই নগরী গড়ার জন্য যা করতে হয় সবার পরামর্শ নিয়ে আমি সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। আমি যদি আল্লাহর রহমতে মেয়র নির্বাচিত হই, চট্টগ্রামকে একটি পরিকল্পিত শহর হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা আমার রয়েছে।

SHARE