চট্টগ্রামে তিনটি পেয়াজ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানে অভিযান, মুচলেকা

112


।।দেশরিভিউ চট্টগ্রাম।।।
বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে তালিকাভুক্ত চট্টগ্রামের পেঁয়াজ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোতে র‍্যাব-৭ কে সাথে নিয়ে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়েছে।

অভিযান অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি), কাট্টলী সার্কেল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।

আজ ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার পেঁয়াজের মূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধে চট্টগ্রামের বাণিজ্যিক এলাকা আগ্রাবাদস্থ তিনটি প্রতিষ্ঠানে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এসব প্রতিষ্ঠান হলোঃ শওকত এন্টারপ্রাইজ, মেসার্স এ আর ট্রেডার্স ও প্রগেস ট্রেড ওভারসীজ।

প্রতিষ্ঠানগুলোতে অভিযানের সময় তাদের আমদানি লাইসেন্স, আমদানির কাগজপত্র খতিয়ে দেখা হয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি), কাট্টলী সার্কেল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোঃ তৌহিদুল ইসলাম এ বিষয়ে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক উদ্ধারকৃত কাগজপত্রে দেখা যায় যে, এসব প্রতিষ্ঠান ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসের পর পেঁয়াজ আমদানি করেনি। এসব প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন দফায় গত বছর ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর, নভেম্বর, ডিসেম্বর এবং সর্বশেষ জানুয়ারি ২০১৯ মাসে ভারত থেকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ আমদানি করেছে। অভিযানের সময় তিনটি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের মালিকগণ এই মর্মে অঙ্গীকারনামা প্রদান করেছে যে, সাম্প্রতিক পেঁয়াজের অস্থির বাজারমূল্য চলাকালীন সময়ে তারা কোনো পেঁয়াজ আমদানি করেনি। যদি তাদের আমদানি লাইসেন্সের বিপরীতে পেঁয়াজ আমদানি ও মূল্যে কারসাজিতে কোনো ধরণের যোগসাজশ প্রমাণিত হয় তাহলে রাষ্ট্রীয় আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

SHARE