ছাত্রলীগের নামে মিথ্যাচার , অ্যাম্বুলেন্স ছাড়তে বলাই ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীকে বেদম পেটালেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

160

তাজুল ইসলাম শিবলী , দেশরিভিউ প্রতিনিধি :

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ পাসের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সমাবেশে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছেন বলে যে অভিযোগ পাওয়া গেছে তা মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন বলেছেন প্রত্যক্ষদর্শী এবং ঢাকা কলেজের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী। বরং অ্যাম্বুলেন্স ছাড়তে বলাই ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীকে বেদম মারধর করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এমন অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

জানা যায় কলেজের সামনের তেল পাম্পে আন্দোলনকারী আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের দ্বারা মারধরের শিকার হয়েছেন ঢাকা কলেজে মাস্টার্স পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী। পরে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা কলেজ ছাত্রদের সঙ্গে আইডিয়াল কলেজ ছাত্রদের ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

এর আগে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টায় হাফ ভাড়ার দাবিতে রাজধানীর সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ করে ঢাকা কলেজ, আইডিয়াল কলেজ, সিটি কলেজসহ আশেপাশের কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। পরে দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়ে শিক্ষার্থীরা অবরোধ কর্মসূচি শেষ করে।

এরপর আইডিয়াল কলেজ ও বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ কলেজের কিছু শিক্ষার্থী মিছিল নিয়ে নীলক্ষেতের দিকে আসতে থাকে এবং ঢাকা কলেজের ওই শিক্ষার্থী আন্দোলোনকারী শিক্ষার্থীদের রাস্তায় থাকা এ্যাম্বুলেন্স ছেড়ে দিতে বলে। আর এটা নিয়েই শুরু হয় বাক-বিতণ্ডা।

পরে ঢাকা কলেজের ওই শিক্ষার্থী মোটরসাইকেল নিয়ে কলেজের সামনের তেল পাম্পে গেলে আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা ধাওয়া দিয়ে তাঁর মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে এবং তাঁকে মারধর করে। এসময় ওই শিক্ষার্থী দৌড়ে ঢাকা কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে।

আন্দোলনকারীদের হাতে মারধরের শিকার ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী হাসু বলেন, আমি শুধু বলেছি এ্যাম্বুলেন্স ছেড়ে দিতে। আর এতেই ওরা সবাই জড়ো হয়ে আমার উপর হামলা চালায়, আমার বাইক ভাঙচুর করে, টি-শার্ট ছিড়ে ফেলে।

এ বিষয়ে নিউমার্কেট জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) শাহেন শাহ্ বলেন, অন্য দিনের মত শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি ছিল আজও। তারা আন্দোলন শেষ করে নীলক্ষেত মোড়ের দিকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে যাচ্ছিল। পরে ঢাকা কলেজের সামনের পাম্পে আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কি হয়েছে সেটা আমরা সরাসরি দেখিনি।

SHARE