শিবিরের হামলায় ছাত্রলীগ কর্মী নিহতের ঘটনায় বিক্ষোভে উত্তাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

3870
(ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীবৃন্দ)

দেশরিভিউ নিউজ ডেস্কঃ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে ছাত্রশিবিরের সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত ছাত্রলীগ কর্মী রাকিব হত্যার প্রতিবাদ ও খুলনার কয়রা উপজেলার ছাত্রলীগ নেতা হাদিউজ্জামান রাসেল সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হওয়ার ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

সোমবার (২ মার্চ) রাত সাড়ে ১০ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিন থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে ছাত্রলীগ। বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে টিএসসির রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। এসময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় পূর্ণাঙ্গ কমিটির নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা।

বিক্ষোভ মিছিলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ‘শিবিরের চামড়া, তুলে নেব আমরা ‘, বঙ্গবন্ধুর বাংলার, রাজাকারের ঠাঁই নাই, “আমার ভাই মরলো কেন, জবাব চাই, জবাব চাই,” অ্যাকশন অ্যাকশন ডাইরেক্ট অ্যাকশন, শিবিরের বিরুদ্ধে ডাইরেক্ট অ্যাকশন প্রভৃতি স্লোগান দেন।

এছাড়া বিক্ষোভ মিছিলে স্বাধীনতাবিরোধী-যুদ্ধাপরাধী-মৌলবাদী জামাত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ ও ছাত্রলীগ কর্মী রাকিব ও রাসেলের হত্যাকারীদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানানো হয়।

উল্লেখ্য, রবিবার (১মার্চ) রাত ৮ টার দিকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ১ নং আমানউল্লাপুর ইউনিয়নের পলোয়ান বাজারে ছাত্রশিবিরের সন্ত্রাসীরা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি চালায় ও হামলা করে। এতে গুরুতর আহত হয়ে ছাত্রলীগ কর্মী রাকিব এদিন মারা যান। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ আরো কয়েকজনের অবস্থাও আশঙ্ককাজনক।

একইদিন খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেল সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হন এবং এদিন ঢাকার আনার পথে তিনিও মারা যান। এ দুই নেতাকর্মী হত্যায় ঘটনায় বিক্ষোভ করে ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় ৫ শিবির ক্যাডার গ্রেপ্তার

SHARE