জি.এস আমিনুল করিমের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ কর্মসূচী

211
(বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে আশেকানে আউলিয়া ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ, ছাত্র সংসদ)

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য জি.এস আমিনুল করিমের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। অপরাধ বিচিত্রা নামক মাসিক ম্যাগাজিনে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ করায় বৃহস্পতিবার (৫সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানাধীন সরকারি আশেকানে আউলিয়া ডিগ্রী কলেজ মাঠে এ বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলটি সরকারি আশেকানে আউলিয়া ডিগ্রিকলেজ প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে নগরীর আতুরার ডিপু এলাকা প্রদক্ষিণ করে পুনরায় কলেজে এসে শেষ হয়।

কলেজ ছাত্রলীগ ও ছাত্রসংসদের যৌথ উদ্যোগে কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মুহাম্মদ নুরউদ্দিন এর সঞ্চালনায় ও কলেজ ছাত্রসংসদের ক্রীড়া সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন আশিকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে প্রধান অতিথি ছিলেন ছাত্রলীগের আহব্বায়ক সুজন গাজী।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,আমিনুল করিম একটি কুচক্রীমহলের ষড়যন্ত্র ও অপ-সাংবাদিকতার শিকার হয়েছেন। সবসময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত ও হলুদ সাংবাদিকরা ভূয়া সংবাদ প্রচার করে দেশরত্ন শেখ হাসিনার অর্জনকে নষ্ট করতে চায়। দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে এই সব ভূয়া সাংবাদিক ও সংবাদপত্রের দিকে নজর রাখার অনুরোধ করেন।

এ সময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী’র কাছে ভূয়া সাংবাদপত্রের বিরুদ্ধে তদন্ত নিয়ে শাস্তি নেওয়ার দাবি ও জানানোসহ ভবিষ্যতে এমন ভূয়া সংবাদ প্রচার বা প্রকাশ করলে কঠোর কর্মসূচীর মাধ্যমে তা প্রতিহতের ঘোষণা দেন।

মানববন্ধনে ছাত্রলীগের আহব্বায়ক সুজন গাজী বলেন, জি.এস আমিনুল করিম এর বিরুদ্ধে অপরাধ বিচিত্রা নামক মাসিক ম্যাগাজিন পত্রিকায় উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করে, মূলত তার সমাজিক ও রাজনৈতিক অবস্তানকে হেয় করার জন্য মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করা হয়।

তিনি বলেন, শ্রদ্ধেয় ডিসি মহোদয় ও বায়েজিদ বোস্তামী থানার অফিসার ইনচার্জ এর নেতৃত্বে মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও জঙ্গিদের বিরোধ সভা, সেমিনার ও গণ-সচেতনতা সৃষ্টি পূর্বক জনগণের পাশে আছেন সর্বদা। সেই ছাত্রনেতাকে আজকে তার সম্মানক্ষুন্ন করার জন্য মাদকের সম্রাট বানাচ্ছেন একটি কুচক্রীমহল। তদন্ত না করে এমন পরিচ্ছন্ন ছাত্রনেতার বিরুদ্ধে মানহানীকর সংবাদ পরিবেশন করায় তার তীব্র প্রতিবাদ করেন তিনি।

সুজন গাজী বলেন, জি.এস আমিনুল করিম ১/১১ পরিক্ষীত রাজপথের কর্মী, ২০০৮ সালের ডিসেম্বর এর নির্বাচনে তার প্রসংশনীয় ভুমিকা রয়েছে। ২০১৩ সালের হেফাজতের তান্ডব প্রতিহত করেছিলেন আমিনুল করিম। ২০১৪ ও ১৫ সালে বিএনপি জামাতের আগুন সন্ত্রাসীরা পেট্রোলবোমা দিয়ে মানুষ মারার বিরুদ্ধে তার ভুমিকা ছিল অত্যন্ত সাহসী।

মাসিক ম্যাগাজিন অপরাধ বিচিত্রাকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান বক্তারা।

বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মনিরুল ইসলাম, কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন, কলেজ ছাত্রনেতা মো:হিউদ্দন, এনামুল হক মিনহাজ, ইলিয়াছ জাহান, মো:ইব্রাহীম, মো:মানিক, মো:জোবায়ের, মো:মাসুম, সাকিব, মাসান্তিক চৌধুরী, সাবরিন, সুমন রাফি, আরিফুল ইসলাম, মো: এমদাদ প্রমুখ।

সংহতি প্রকাশ করে আরও উপস্থিত ছিলেন মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক, কলেজ ছাত্রসংসদের উপদেষ্টা ড.মোজাহেরুল আলম, ছাত্রনেতা আব্দুল হালিম সাগর, তৌহিদুল ইসলাম নিপু, জালাল উদ্দিন জুবাইয়ের, এ,এইচ সজিব, মাঈনুদ্দিন হৃদয় প্রমুখ।

-দেশরিভিউ

SHARE