ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দূর্ধর্ষ ছাত্রদল নেতা অস্ত্রসহ আটক

841
আটক সৈকত হোসেন (৩৩) ও মিজানুর রহমান (২৫)

।।স্থানীয় প্রতিনিধি, দেশরিভিউ।।
বগুড়ার গাবতলীতে গত মঙ্গলবার রাতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দূর্ধর্ষ ছাত্রদল নেতা সৈকত হোসেন (৩৩) ও মিজানুর রহমান (২৫) নামে দুই যুবককে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। সৈকত হোসেন ওরফে সৈকত নেপালতলী ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং বর্তমানে জেলা ছাত্রদলের রাজনীতিতে জড়িত।

গ্রেফতারকৃত সৈকতের বিরুদ্ধে ছিনতাই, গণধর্ষন করে হত্যা মামলা এবং মিজানুরের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন, জুয়া ও মারামারির একাধিক মামলা রয়েছে।

পুলিশ বলছে, বগুড়ার গাবতলীতে রাতের আধাঁরে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে বিভিন্ন ধারালো অস্ত্রসহ ছাত্রদল নেতা সৈকত হোসেন ওরফে সৈকত (৩৩)সহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের কুচেমারী ব্রীজ সংলগ্ন স্থান থেকে তাদের ২জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানা গেছে, উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের আটাপাড়া বাজার টু সুখানপুকুর সড়কের কুচেমারি ব্রীজ সংলগ্ন স্থানে ১৫/১৬জনের একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করছিল। এমন সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার ওসি সেলিম হোসেনকে অবগত করে রাত্রীকালীন টহলরত পুলিশ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে দুইজন ডাকাতকে দেশীয় অস্ত্রসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করে।

আটক হওয়াদের কাছ থেকে ফোলডিং চাকু, চাইনিজ কুড়াল, হাসুয়া, লোহার পাইপ ও কড়াত উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় ডাকাতদলের অন্যান্য সদস্যরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানার এসআই কান্তি কুমার মোদক বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন ও ডাকাতির প্রস্তুতির পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে।

এ ব্যাপারে থানার ওসি সেলিম হোসেন বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। ডাকাতদলের অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

SHARE