ড. কামাল, ফখরুলসহ অনেকেই শেখ হাসিনার পক্ষে ছিলেন: প্রভাষ আমিন

88

দেশরিভিউ: এই যে ‘হাসিনা ম্যাজিক’ বলা হচ্ছে, এটা কী? ‘হাসিনা ম্যাজিক’ হলেন শেখ হাসিনা নিজেই। ’৭৫ সালে সপরিবারে বঙ্গবন্ধু নিহত হওয়ার পর ৬ বছর নির্বাসিত জীবনযাপন করেছেন। ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে বঙ্গবন্ধু কন্যা হিসেবেই উত্তরাধিকারসূত্রে আওয়ামী লীগের দায়িত্ব নেন। তারপর ৩৭ বছরের এক অসাধারণ জার্নি। বঙ্গবন্ধু কন্যা, এই পরিচয় অবশ্যই শেখ হাসিনার জন্য সবচেয়ে বেশি গৌরবের। কিন্তু শেখ হাসিনা এখন নিজের যোগ্যতায়ই দলের সভানেত্রী, দেশের প্রধানমন্ত্রী। শুধু দেশ বা দল নয়, বিশ্ব রাজনীতিতেও শেখ হাসিনা এখন একক অনন্য নাম। এ অর্জন শেখ হাসিনার একার, তাঁর ৩৭ বছরের লড়াইয়ের ফল।

ড. সলিমুল্লাহ খান নির্বাচনের পর এক টক শো’তে বলেছিলেন, এবারের নির্বাচন আসলে শেখ হাসিনার পক্ষে-বিপক্ষে গণভোট হয়েছে। আর সেই গণভোটে শেখ হাসিনা বিপুল রায় পেয়েছেন। অবশ্য বিরোধী দল নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ এনেছে। আগের রাতেই সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভর্তি করে রাখা, বিএনপির এজেন্টদের ঢুকতে না দেয়া, ভোটারদের কেন্দ্রে যেতে না দেয়া ইত্যাদি ইত্যাদি। যদিও বিরোধী দল অভিযোগের পক্ষে জোরালো প্রমাণ দিতে পারেনি এখনও, তবুও আমি ধরে নিচ্ছি তাদের অভিযোগগুলো সত্যি। কিন্তু মাঠের বাস্তবতা কেমন ছিল? অভিযোগগুলো সত্যি না হলেই কি বিএনপি জিতে যেতো? আওয়ামী লীগের স্পষ্ট অবস্থান ছিল, দল জিতলে শেখ হাসিনাই প্রধানমন্ত্রী হবেন। কিন্তু শেখ হাসিনার ঝলমলে নেতৃত্বের বিপরীতে ঐক্যফ্রন্ট কাউকে দাঁড় করাতে পারেনি।

ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল নির্বাচনেই অংশ নেননি। ঐক্যফ্রন্ট জিতলে কে প্রধানমন্ত্রী হবেন, তাও তারা পরিষ্কার করেনি। তাদের লুকোছাপা দেখে মনে হয়েছে, ঐক্যফ্রন্ট জিতলে তারেক রহমানই প্রধানমন্ত্রী হবেন। কারণ দলের মনোনয়ন প্রক্রিয়া থেকে শুরু করে, সবকিছু ছিল তারেক রহমানের নিয়ন্ত্রণে। এখন আপনারাই বলুন, নৌকা জিতলে শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী; ধানের শীষ জিতলে তারেক রহমান প্রধানমন্ত্রী; এই সমীকরণে আপনি কাকে ভোট দেবেন? আমার তো ধারণা ড. কামাল, মির্জা ফখরুলসহ অনেকেই গোপনে শেখ হাসিনার পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

যতই স্বৈরাচার বলুন আর একচ্ছত্র নেতৃত্ব বলুন; প্রধানমন্ত্রী পদে শেখ হাসিনার চেয়ে যোগ্য ব্যক্তি আর কে আছেন বাংলাদেশে?

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের একটি প্রিয় স্লোগান ‘যতদিন শেখ হাসিনার হাতে দেশ, ততদিন পথ হারাবে না বাংলাদেশ।’ আমরাও চাই পথ না হারাক বাংলাদেশ। উন্নয়নের পথে আরো গতি পাক। শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই পথ ফিরে পাক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ, আইনের শাসনের বাংলাদেশ, মানবাধিকারের বাংলাদেশ, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ।

(ফেসবুকে লিখেছেন- প্রভাষ আমিন)

SHARE