তাবিথ-ইশরাকের নির্বাচনী প্রচারনায় আবারো সেই ‘নষ্টা মেয়ে’ শায়লা (ভিডিও)

660


দেশরিভিউ সংবাদ:
‘নষ্টা মেয়ে, তেজী মেয়ে, জ্বলন্ত নারী’ সহ অসংখ্য অশ্লীল সিনেমার বিতর্কিত নায়িকা বিএনপি নেত্রী শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির দুই মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও ইশরাক হোসেনর জন্য প্রচারনায় নেমেছেন।

নির্বাচনী প্রচারনার চতুর্থদিনে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বিএনপি প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের জন্য ধানের শীষে ভোট চেয়ে বিএনপি নেত্রী শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা নগরীর বাড্ডা, ভাটারা, বারিধারা এলাকায় প্রচারণা চালান।

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির দুই মেয়র প্রার্থীর পক্ষে প্রচারনায় অংশ নিয়েছেন বিতর্কিত অভিনেত্রী শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা।

এছাড়াও দক্ষিণের বিএনপি প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের পক্ষে প্রচারনার পঞ্চম দিনে গণসংযোগ করেন একসময়ের বাংলা চলচিত্রের বিতর্কিত নায়িকা শায়লা। এদিন খিলগাঁও, মুগদা, বাসাবো, সবুজবাগ এলাকায় বিএনপি নেত্রী শাহরিয়ার ইসলাম শায়লাকে ধানের শীষে ভোট চাইতে দেখা যায়।

এদিকে বাংলা চলচিত্রের বিতর্কিত নায়িকা শায়লাকে দিয়ে ভোটের প্রচারনা চালানোর পর সমালোচনা উঠেছে নির্বাচনী এলাকাসমূহে। মুগদা এলাকার বাসিন্দা সাইফুর রহমান দেশরিভিউকে বলেন, এলাকায় ধানের শীষে ভোট চাইতে এসেছিলেন নায়িকা শায়লা। বিএনপিতে কি ভালো আর নেত্রী ছিল না—প্রশ্ন রাখেন সাইফুর রহমান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, শায়লা তার ত্যাগ শ্রম ও যোগ্যতায় বিএনপিতে নেত্রী হয়েছেন। তার সাংগঠনিক কাজে অংশগ্রহনের অধিকার রয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-৪ আসন থেকে বিএনপির প্রাথমিক মনোনয়ন পান বিতর্কিত সমালোচিত অশ্লিল বাংলা চলচিত্রের নায়িকা শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা।

উল্লেখ্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-৪ আসনে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনের জন্য প্রাথমিক মনোনয়ন পেয়েছিলেন বাংলা চলচিত্রের অশ্লীল সিনেমার নায়িকা শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা। ছোটবেলা থেকেই ঢাকায় বসবাস করা শায়লা বিএনপির রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডেও জড়িত। রাজনৈতিকভাবে শায়লা বিএনপির জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংস্থা- জাসাস এর কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি।

বিগত ২০০১ সালে বিএনপি জামায়াত জোট ক্ষমতায় আসলে বাংলাদেশের সিনেমা জগতে নেমে আসে অশ্লীলতার বন্যা। রাজ্জাক, আলমগীর, শাবানা, ববিতার মতো বাংলা চলচিত্রের কিং কুইনরা সিনেমা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে থাকে। এসময়ে বিএনপির সাংস্কৃতিক উয়িং জাসাসের সদস্যরা বাংলা ছায়াছাবির মূল চরিত্রে অভিনয় করা শুরু করে। শায়লা, মুনমুন, ময়ুরী, কেয়া’র মতো কিছু অশ্লীল পোষাকের নায়িকারা বাংলাদেশের চলচিত্রে জায়গা দখল করে।

জানা গেছে শায়লার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে, ওরা কারা, ফুটপাতের শায়েনশাহ, নষ্টা মেয়ে, জ্বলন্ত নারী, ধর মফিজ, তেজী মেয়ে, যৌথ হামলাসহ বেশ কিছু চলচ্চিত্র।

দেশরিভিউ/বিনোদন/সাকিব

SHARE