দক্ষিন আফ্রিকাকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে ভারতের সামনে শ্রীলঙ্কা

60


রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে যেন ফিরে এলো এক দশক আগের ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনাল। ২০১১ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত ও শ্রীলঙ্কা। এবার রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজের ফাইনালেও খেলবে এ দুই দল।
টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সেমিফাইনাল ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট পেয়েছে শ্রীলঙ্কা লেজেন্ডস। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে শিরোপার লড়াইয়ে নাম লিখিয়েছিল স্বাগতিক ভারত লেজেন্ডস।

রায়পুরের শহীদ বীর সিং স্টেডিয়ামে আজ (শুক্রবার) সেমির লড়াইয়ে আগে ব্যাট করে ১২৫ রানের বেশি করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা লেজেন্ডস। জবাবে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ১৭.২ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় শ্রীলঙ্কা।
টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নুয়ান কুলসেকারার বোলিংয়ে কুপোকাত হয়েছে প্রোটিয়ারা। নিজের ৪ ওভারের স্পেলে ২৫ রান খরচায় ৫ উইকেট নিয়েছেন ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা কুলসেকারা।

দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে ব্যাট হাতে আশা জাগিয়েছিলেন মরনে ফন উইক। এই ওপেনারের ব্যাট থেকে আসে ৪৭ বলে ৫৩ রানের ইনিংস। এছাড়া তিন নম্বরে নামা আলভিরো পিটারসেন ২৭ বলে ২৭ রান করেন। যা দলকে জয়ের জন্য যথেষ্ঠ সংগ্রহ এনে দিতে পারেনি।
ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শ্রীলঙ্কার দুই ওপেনার খুব বেশি কিছু করতে পারেননি। সনাৎ জয়াসুরিয়া ১৮ বলে ১৮ এবং তিলকারাত্নে দিলশান ১৭ বলে করেন ১৮ রান। তবে তৃতীয় উইকেট জুটিতে ম্যাচ শেষ করে বের হন উপুল থারাঙ্গা ও চিন্থাকা জয়াসিংহে।

তারা দুজন মিলে গড়েন মাত্র ৪৮ বলে গড়েন ৭০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা থারাঙ্গা ৪৪ বলে করেন ৩৯ রান। ঝড় তোলেন চিন্থাকা, মাত্র ২৫ বলে ৮ চার ও ১ ছয়ের মারে খেলেন ৪৭ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংস।
আগামী রোববার ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হবে ভারত ও শ্রীলঙ্কা।

SHARE