দুবাইয়ের ডান্সবারে তরুণীদের যৌনব্যবসায় বাধ্য করাতো বিএনপি নেতা

169

।।দেশরিভিউ নিউজডেস্ক।। 

চাকরির লোভ দেখিয় আট বছরে শতাধিক নারীকে পাচার করা হয়েছে দুবাইয়ের বিভিন্ন তারকা হোটেলে সেখানে ডান্সবারে বাংলাদেশি কিশোরী-তরুণীকে দিয়ে যৌনব্যবসায় বাধ্য করা হতো। মানবপাচার চক্রের মূল হোতা বিএনপি নেতা আজম খানসহ তিন জনকে গ্রেফতার করে সিআইডি এই তথ্য জানায়।

সিআইডি জানায়, দুবাইয়ের চারটি হোটেলে বাংলাদেশ থেকে নেয়া নারীদের আটকে রেখে যৌন নিপিড়ন ও নির্যাতন করার অপরাধে এ বছরের শুরুতে সংযুক্ত আরব আরব আমিরাত সরকার আজম খানকে দেশে পাঠিয়ে দেয়। এরপর পালিয়ে বেড়ানো আজম খানকে গ্রেফতার করে তার মোবাইল থেকে বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করে সিআইডি । উদ্ধার হওয়া অডিও ক্লিপে ভুক্তভোগী তরুণীদের নির্যাতন থেকে বাঁচতে ও প্রতিশ্রুত বেতন দিতে আকুতি জানাতে শোনা যায়।

উদ্ধার হওয়া মোবাইলে জিয়া আদর্শ একাডেমির ব্যনারে বিএনপির বিভিন্ন কেন্দ্রীয় নেতার সাথে তার তৎপরতার ছবি পেয়েছে সিআইডি। জানা গেছে, আজম খান সংসদীয় আসন চট্টগ্রাম-২ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।

ব্রিফিংয়ে সিআইডি জানায়, চক্রের গড ফাদার আজম খান গেল আট বছরে শতাধিক বাংলাদেশি তরুণীকে পাচার করে তার যৌন ব্যবসায় নামতে বাধ্য করেছেন। এ চক্রের সাথে আন্তর্জাতিক নারী পাচার চক্রের সদস্যরাও জড়িত বলে জানিয়েছে সিআইডি।

SHARE