ধানের শীষ মার্কায় বিতর্কিত ‘শীর্ষ ৫০’

93

 জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপি’র নির্বাচনী প্রতীক ‘ধানের শীষ’ মার্কায় এবারো প্রচুর বিতর্কিত প্রার্থী নির্বাচন করতে যাচ্ছে। দেশরিভিউ অনুসন্ধানে শীর্ষ ৫০ বিতর্কিত প্রার্থীর তালিকা তুলে ধরা হলো..

রাজশাহী ১ আসন:জেএমবির মূল পৃষ্টপোষক ৪ দলীয় জোট সরকারের মন্ত্রী ব্যারিষ্টার আমিনুল হক।

নাটোর ৪ আসন:জঙ্গী সংগঠন জেএমবির মাষ্টারমাইন্ড ও বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু।

পিরোজপুর ১ আসন:যুদ্ধাপরাধী হিসাবে দন্ডিত জামায়াত নেতা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর সন্তান শামীম সাঈদী।

জয়পুরহাট ১ আসন:৭১ সালে মানবতা বিরোধী অপরাধে দন্ডিত বিএনপি নেতা আব্দুল আলিমের পূত্র ফয়সাল আলীম।

চট্টগ্রাম ০৬  আসন:কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী ফজলুল কাদের চৌধুরীর (ফকা) নাতি সামির কাদের চৌধুরী।

চট্টগ্রাম ৭ আসন:কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী ফজলুল কাদের চৌধুরীর সন্তান ও সাকা চৌধুরীর সহোদর গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী(গিকা)

ঢাকা ৭ আসন:পীলখানা ট্রাজেডির মাস্টারমাইন্ড নাছির উদ্দিন পিন্টুর স্ত্রী নাসিমা আক্তার কল্পনা।

নেত্রকোনা ৪ আসন:২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামী সাবেক স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী বাবরের স্ত্রী তাহমিনা জামান শ্রাবণী।

টাঙ্গাইল ২ আসন:২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আবদুস সালাম পিন্টুর ভাই শামছুল আলম তোফা।

রাজশাহী ৫ আসন:জেএমবির পৃষ্টপোষক ও অর্থদাতা, বিএনপি দলীয় সাবেক সাংসদ নাদিম   মোস্তফা

নওগাঁ ৬ আসন:জেএমবির প্রতিষ্ঠাকালীন উপদেষ্টা, চারদলীয় জোট সরকারের আমলের সাবেক গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবির

রাজশাহী ৩ আসন:বিএনপি দলীয় সাবেক মেয়র ও বৃহত্তর রাজশাহীতে জেএমবি ও বাংলা ভাই গংদের গডফাদার মিজানুর রহমান মিনু

চট্টগ্রাম ৫  আসন:শহীদ হামজা ব্রিগেড জঙ্গীসংগঠনকে সহযোগিতা করার অভিযোগে দায়েরকৃত জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদ মামলার আসামী  শাকিলা ফারজানা।

ফরিদপুর ৪ আসন:অশ্লিল বাংলা সিনেমার বিতর্কিত নায়িকা শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা।

৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে বিতর্কিত কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকা সংগঠন জামায়াতে ইসলামের নিবন্ধন বাতিল হলে দলটির নেতাদের ২৫ আসনে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনের সুযোগ দিচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

পিরোজপুর ১ আসনে রাজাকার দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর পূত্র শামীম সাঈদী ছাড়া অপর ২৪ জন হচ্ছেন-

আব্দুল হাকিম (ঠাকুরগাঁও-২), মোহাম্মদ হানিফ (দিনাজপুর-১), আনোয়ারুল ইসলাম (দিনাজপুর-৬), মনিরুজ্জামান মন্টু (নীলফামারী-২), আজিজুল ইসলাম (নীলফামারী-৩), গোলাম রব্বানী (রংপুর-৫), মাজেদুর রহমান সরকার (গাইবান্ধা-১), রফিকুল ইসলাম খান (সিরাজগঞ্জ-৪), ইকবাল হুসেইন (পাবনা-৫), মতিউর রহমান (ঝিনাইদহ-৩), সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহের (কুমিল্লা-১১), হামিদুর রহমান আজাদ (কক্সবাজার-২), শামসুল ইসলাম ( চট্টগ্রাম-১৫)। আবু সাঈদ মুহাম্মদ শাহাদত হোসাইন (যশোর-২), আব্দুল ওয়াদুদ (বাগেরহাট-৩), আবদুল আলিম (বাগেরহাট-৪), মিয়া গোলাম পরওয়ার (খুলনা-৫), আবুল কালাম আযাদ (খুলনা-৬), রবিউল বাশার (সাতক্ষীরা-৩), আব্দুল খালেক (সাতক্ষীরা-২), গাজী নজরুল ইসলাম (সাতক্ষীরা-৪), ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী (সিলেট-৫), হাবিবুর রহমান (সিলেট-৬) ও শফিকুর রহমান (ঢাকা-১৫)। এছাড়াও ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করছেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনে দূর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত হয়ে নির্বাচন করতে না পারা ৪ দলীয় জোট সরকারের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম. মোর্শেদ খান, ইসরাঈলী গোয়েন্দা মুসাদ ষড়যন্ত্রে অভিযুক্ত আসলাম খান, সাংবাদিক পিঠিয়ে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত হওয়া সাবেক সাংসদ গোলাম মওলা রনি, বগুড়ার অপরাধজগৎ নিয়ন্ত্রণের ডন খ্যাত মোহাম্মদ শোকরানা বগুড়া–১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনে,  বগুড়া-৩ (আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া) আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার আসামি আবদুল মোমিন তালুকদার। এছাড়া ওয়ান ইলেভেনের সময় সংস্কারপন্থি বলে পরিচিতি পাওয়াদের মধ্যে আবু হেনা (রাজশাহী-৪), আলমগীর কবির (নওগাঁ-৬), জহিরউদ্দিন স্বপন (বরিশাল-১), সাখাওয়াত হোসেন বকুল (নরসিংদী-৪) এবং শহীদুল হক জামালকেও (বরিশাল-২) মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি৷ ময়মনসিংহ-৬ (ফুলবাড়িয়া) আসনে বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার শামছ উদ্দিন আহমদ। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনে রয়েছেন সাবেক এমপি শাহজাহান মিয়া।

SHARE