নরওয়ের মসজিদে বন্দুকধারীর গুলি, জাপটে ধরে প্রসংশিত রফিক

92
আল নুর ইসলামিক সেন্টার নামের এ মসজিদে মুসল্লিদের হত্যার উদ্দেশ্যে অস্ত্র হাতে এক বন্দুকধারী যুবক প্রবেশ করে

।।দেশরিভিউ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।
নরওয়ের রাজধানী অসলোর কাছে একটি মসজিদে প্রবেশ করে এক বন্দুকধারী গুলি করার খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার স্থানীয় সময় বিকেলে রাজধানী থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে বায়েরুম এলাকার আল নুর ইসলামিক সেন্টার নামের এ মসজিদে মুসল্লিদের হত্যার উদ্দেশ্যে অস্ত্র হাতে এ যুবক প্রবেশ করে।

এ ঘটনার সময় ৬৫ বছর বয়সী মোহাম্মদ রফিক নামে এক মুসল্লি বন্দুকধারীকে নিজের জীবন বাজি রেখে জাপটে ধরেন। আর এতে প্রান বাঁচে মসজিদে থাকা অপর মুসল্লিদের।

বন্দুকধারীকে ঝাপটে ধরে অন্যান্য মুসল্লীদের প্রান বাঁচান মোহাম্মদ রফিক নামের অপর এক মুসল্লি।

এমন ঘটনায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোতে মোহাম্মদ রফিকের সাহসিকতার প্রশংসা করেছে। স্থানীয় মানুষও তার প্রশংসায় বেশ মাতোয়ারা।

পিলিপ মানশুস (২১) নামের ঐ বন্দুকধারী অত্র এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা বলে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

জানা গেছে পিলিপ মানশুস (২১) নামের ঐ বন্দুকধারী অত্র এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা। মাথায় হেলমেট এবং গায়ে বুলেটপ্রুফ পোশাক পরে মসজিদে প্রবেশ করার সময় তার হাতে শটগান এবং পিস্তল ছিলো। সেখানে ঢুকেই গুলি চালানো শুরু করে এই বন্দুকধারী। এসময় মসজিদে মাত্র ৩ জন মুসল্লি ছিলো। এমন সময়ে ৬৫ বছর বয়সী মোহাম্মদ রফিক নামের এক মুসল্লি বন্দুকধারীকে ধরে ফেলেন। এসময় আরেকজন তাকে আঘাত করেন। এর ফলে হামলাকারী নিচে পড়ে যায়। একপর্যায়ে তার হাত থেকে আস্ত্রগুলো ছিনিয়ে নেই রফিক এবং কার অপর সঙ্গী। পুলিশ আসার আগ পর্যন্ত তারা ওই বন্দুকধারীকে
ধরে রাখেন বলে জানা যায়।

নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এটি মোকাবেলার চেষ্টা করছি। কিন্তু এটা একটা চ্যালেঞ্জ। আমি মনে করি, এটা এক অর্থে বিশ্বজুড়ে একটা চ্যালেঞ্জ। ’

SHARE