নোয়াখালীতে স্পিরিট খেয়ে ৫ জনের মৃত্যু

83


।।দেশরিভিউ নোয়াখালী।।
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় স্পিরিট মেশানো কোমল পানীয় পান করে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আরো ৬ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ও ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত এ পাঁচ জনের মৃত্যু হয়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, নেশা করার জন্য হোমিও দোকান থেকে স্পিরিট নিয়ে কোমল পানীয়ের সঙ্গে মিশিয়ে পান করায় এ ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন- উপজেলার মোহাম্মদ নগর গ্রামের মৃত ফয়েজ আহমদের ছেলে মহিন উদ্দিন (৪০), বসুরহাট পৌরসভা ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাঁশ ব্যাপারী বাড়ির নুর নবী মানিক (৫০), পৌরসভা ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ক্ষিরত মহাজন বাড়ির রবি লাল রায় (৫৭), চরকাঁকড়া ইউনিয়নের টেকের বাজার এলাকার আবদুল খালেক (৭২), সিরাজপুর ইউনিয়নের মতলব মিয়ার বাড়ি সংলগ্ন সবুজ (৬০)। 

এ ঘটনায় পুলিশ স্পিরিট বিক্রেতার ছেলে প্রিয়মকে আটক করলেও বিক্রেতা ডা. জাহেদ পলাতক রয়েছেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এ দোকানের মালিক জাহেদ ও তার ছেলে প্রিয়ম দীর্ঘদিন ধরে অনেকটা খোলামেলাভাবেই এই হোমিও হলে স্পিরিটসহ বিভিন্ন নেশা জাতীয় দ্রব্য বিক্রি করে আসছেন। 

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুর রহমান ৫ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,
খবর পেয়ে পুলিশ নিহত ৫ জনের বাড়ি পরিদর্শন করেছে। ২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ৩ জনের দাফন আগেই সম্পন্ন করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওসি।   

SHARE