পাইলটের বুদ্ধিমত্তায় বিমান ছিনতাই ব্যর্থ: আটক ১

809

।।দেশরিভিউ-চট্টগ্রাম।। আপডেট: রাত :১৫ মিনিট

”ঘটনার সঙ্গে জড়িত যুবক নিহত হয়েছেন”

চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দরে বিমান ছিনতাইয় চেষ্টা নাটকের অবসান হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত যুবক নিহত হয়েছেন। রোববার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত পৌনে নয়টায় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ব্রিফিংয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

ব্রিফিংয়ে বলা হয়, প্রথমে ওই যুবককে আত্মসমার্পণের আহ্বান জানায় কমান্ডো বাহিনী। এতে সে সাড়া দেয়নি। বরং সে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে। এরপর স্বাভাবিকভাবেই অ্যাকশনে যায় কমান্ডোরা। এতে সে প্রথমে আহত হয় এবং পরে তার মৃত্যু হয়। মৃত ব্যক্তির নাম মাহদী বলে জানানো হয়েছে।

তার আগে জানা গেছে বিমানটি আকাশে থাকা অবস্থায় ঐ ব্যাক্তি পাইলটকে অস্ত্র ঠেকিয়ে জিম্মি করার মাধ্যমে গতিপথ নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করেছিলেন। এ বিষয়টি  নিশ্চিত করে বিমানে থাকা চট্টগ্রামের সাংসদ মাইনউদ্দিন খান বাদল গনমাধ্যমকে টেলিফোনে বলেছিলেন, পাইলট আমার সঙ্গে নেমে এসেছিল। সে বলেছে, তাকে পারসু করার চেষ্টা করেছিলো হাইজ্যাকার। হাইজ্যাকার ঐ পাইলটকে বলছে সে শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলতে চায়। “সমস্ত যাত্রীরা সেইফ রয়েছে বলেও জানান তিনি।

তখন পুলিশ বলছিলো, “ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়ার পর একজন যাত্রী ককপিটে ঢুকে পাইলটকে পিস্তল ধরে বলে, আমাকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলিয়ে দিতে হবে। পাইলট ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে চট্রগ্রামে অবতরণ করান। রাত ৭:৪৫ মিনিটে বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানানো হয়, বিমান জিম্মির চেষ্টায় একজনকে আটক করা হয়েছে।পরে রাত পৌনে নয়টায় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ব্রিফিংয়ে নিশ্চিত করা হয় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটকের পর ঐ যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

 

 

 

SHARE