পিএসজি সমর্থকদের দু’চোখের বিষ!ম্যাচের পুরো সময় নেইমারকে গালি দিয়েছেন দর্শকরা

95

।।দেশরিভিউ।।

রেকর্ড অর্থের বিনিময়ে বার্সেলোনা থেকে পিএসজিতে এসেছিলেন ব্রাজিল সুপার স্টার নেইমার। কিন্তু সেখানে গিয়ে পিএসজির দর্শকদের আশানুরূপ সাফল্য এনে দিতে ব্যর্থ বার্সার সাবেক ফুটবলার। একসময় পিএসজিতে চোখের মণি হয়ে ছিলেন নেইমার। কিন্তু এখন পিএসজি সমর্থকদের দু’চোখের বিষ! তার বার্সেলোনায় প্রত্যাবর্তনের নাটকের কারণে বেজায় চটে আছে সমর্থকেরাও।

গ্রীষ্মকালীন দলবদলের পালা শেষ হওয়ায় নেইমারের এই যাত্রায় মেসির বার্সেলোনায় যাওয়া হচ্ছে না। তাই-তো পিএসজির হয়েই খেলতে হবে ব্রাজিলিয়ানকে। গতকাল লিগ ওয়ানের চলতি মৌসুমে প্রথম বারের মতো মাঠে নেমে দুয়োধ্বনি আর গালাগাল শুনে কাটাতে হলো পুরোটা সময়! ১২৬ দিন পর গতকাল শনিবার স্ট্রাসবুর্গের বিপক্ষে পিএসজির হয়ে মাঠে নেমেছিলেন নেইমার। এই ১২৬ দিনে হয়ে গিয়েছে অনেক কিছু। বার্সেলোনায় যাওয়ার জন্য নিজের পক্ষে যা যা করা সম্ভব, নেইমার সব করেছেন। তাতে পিএসজির অসম্মান হোক বা না হোক, নেইমার পরোয়া করেননি। এত কিছু করার পরও বার্সায় যাওয়া হয়নি। ইউরোপীয় ফুটবলে ক্লাবের অসম্মান মানে সমর্থকদের মাথায় রক্ত উঠে যাওয়া। আপনি যত বড় ফুটবলারই হোন না কেন, ক্লাবের অসম্মান মেনে নেবে না সমর্থকেরা।
যে কারণে গতকালের ম্যাচে পিএসজি সমর্থকেরা প্রকাশের অযোগ্য ভাষায় গালাগালিতে ভরা ব্যানার লিখে মাঠে এনেছিলেন। ম্যাচে যখনই নেইমারের পায়ে বল যাচ্ছিল, দর্শকেরা দুয়ো দিয়েছেন, চিৎকার করে গালি দিয়েছেন। নেইমারের আসলে কিছু করার ছিল না। নীরবে সব শুনে গেছেন। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে বাইসাইকেল কিকে চোখ ধাঁধানো গোল করে দিয়েছেন এসব লাঞ্ছনার জবাব। একেবারে শেষ মিনিটের ওই গোলে জয় পায় পিএসজি। তাদের সমর্থকেরাও অনেকটা শান্ত হয়। তবে আরও অনেকদিন যে নেইমারকে গালাগাল শুনে যেতে হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

SHARE