পুত্রবধূকে ধর্ষন, শ্বশুর আলতাফ হোসেন আটক

208


।।দেশরিভিউ, স্থানীয় প্রতিনিধি।।
কুড়িগ্রামে পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর আলতাফ হোসেনকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ধর্ষণ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গৃহবধূর স্বামী এবং ধর্ষকের ছেলে নিজে বাদী হয়ে বাবা আলতাফ হোসেনের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) সন্ধ্যায় সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর রাতেই অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আলতাফ হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ এবং ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পেশায় কৃষক আলতাফ হোসেনের ২ ছেলে ও ১ কন্যা রয়েছে। এদের মধ্যে বড় ছেলের ২০ বছর বয়সী স্ত্রী ও ৭ মাস বয়সী ছেলেকে বাড়িতে রেখে ঢাকায় রাজমিস্ত্রীর কাজ করে। ঢাকা থেকে ফিরে গত শনিবার (৬ জুলাই) ভোরবেলা বাড়িতে এসে স্ত্রী এবং তার বাবাকে আপত্তিকর লিপ্ত অবস্থায় দেখতে পান।  

এ পরিস্থিতিতে আলতাফ হোসেন স্হানীয় মেম্বার রফিকুল ইসলামকে দিয়ে শালিসের মাধ্যমে বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এরপর বড় ছেলে নিজে বাদী হয়ে বাবা আলতাফ হোসেনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। 

ধর্ষিতা পুত্রবধূর অভিযোগ, স্বামীর অনুপস্থিতি সুযোগে নানা রকম ভয়ভীতি দেখিয়ে মোট ৫ বার তার শ্বশুর তাকে ধর্ষণ করেছে। শেষবারের ঘটনা তার স্বামী হঠাৎ এসে দেখতে পেয়েছে। এ বিষয়টি তার শাশুড়ি জানা সত্ত্বেও ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা ছাড়া অন্য কিছু করেনি।

শাশুড়ি আরজিনা বেগম দাবি করেছেন, স্বামীকে এই জঘন্য কাজ থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন। স্বামীর মাথার ওপও কোরান শরীফ দিয়ে প্রতিজ্ঞা করানোর পরও তাকে নিবৃত্ত করা যায়নি। ধর্ষিতা গৃহবধূর বাবা এই ঘটনার ন্যায্য বিচার দাবি করে বলেন, আমার মেয়ের জীবন তছনছ হয়ে গেলো।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো মাহফুজার রহমান বলেন, মামলাটি ২০০০ সালের নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় রেকর্ড করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া ধর্ষিতা গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

SHARE