পূত্রকে বাঁচাতে এসে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের হাতে পিতা খুন; আটক ২

1040
নিহত মোস্তাক আহমেদ

।।শরীফ চৌধুরী-চট্টগ্রাম।।
নগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন মুরাদপুর পিলখানা এলাকায় শুক্রবার তারাবিহ নামাজ চলাকালে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের হামলায় মোস্তাক আহমেদ নামে এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। এ ঘটনায় ২ সন্ত্রাসীকে আটক করেছে পুলিশ।

ঘটনায় বর্ননায় জানা গেছে, শুক্রবার তারাবিহ নামাজের আগে নিহত মোস্তাক আহমেদের দোকানে তার ছেলে নাঈম আহমেদের সাথে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে স্থানীয় সন্ত্রাসী শাহেদ, সাজ্জাদ, রাব্বি ও তুহিনের কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনার জের ধরে রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে ঐ ৪ সন্ত্রাসী বহিরাগত কিছু যুবকসহ দলবেধে এসে নাঈম আহমেদকে দোকান থেকে বের করে মারধর করতে থাকে। দূর থেকে নিজের সন্তানকে মারধরের ঘটনা দেখতে পেয়ে এসময় মোস্তাক আহমেদ এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা তার বুকে ছুরিকাহত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় পাশের মসজিদে তারাবিহ নামাজ চললেও চিৎকার শুনে মুসল্লিরা দৌড়ে এসে সন্ত্রাসীদের পিছে ধাওয়া দিয়ে একজনকে আটক করে পুলিশে দেয়। পরে স্থানীয়রা মূমূর্ষ অবস্থায় ছুরিকাহত মোস্তাক আহমেদকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এদিকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে পাঁচলাইশ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কাশেম ভূইয়া জানান, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে শাহেদ ও সাজ্জাদ নামের দুই সন্ত্রাসীকে আটক করেছে পুলিশ। খুনে জড়িত বাকী আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।
বর্তমানে নিহত মোস্তাক আহমেদের লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

SHARE