প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আপত্তিকর ভিডিও বার্তা: শিবির কর্মী আটক

64


দেশরিভিউ:
ফেসবুকে লাইভে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ভিডিও প্রচার করার অভিযোগে শিবির কর্মী মো.নুরুল আজাদ (২৬) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
রোববার রাতে পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করে।

এর আগে বেলা একটার দিকে চকরিয়ার নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ১০টার দিকে মো.নুরুল আজাদ ফেসবুক লাইভে এসে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দিলে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়।

নুরুল আজাদ কক্সবাজার সরকারি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও চকরিয়া পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের রাজধানীপাড়া পুকপুকুরিয়া এলাকার এনামুল হকের ছেলে।
এ ঘটনায় চকরিয়া পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের খোয়াজনগর এলাকার বাসিন্দা ফারুক হোসাইন বুলেট বাদী হয়ে নুরুল আজাদকে প্রধান আসামি করে তথ্য প্রযুক্তি আইনে চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

জানা যায়, নুরুল আজাদ ফেসবুকে “সিকদারুল ইসলাম সাগর” আইডিতে লাইভে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি ও গালিগালাজের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও সমালোচনা করেন। ৩ মিনিট ৫৭ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে তাকে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগকে অশ্লীল ও আক্রমণাত্মক ভাষায় গালিগালাজ  করতে দেখা যায়।

৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মামলার বাদী ফারুক হোসাইন বুলেট জানান, তার এলাকার নুরুল আজাদ শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত এবং ৯নং ওয়ার্ড শিবিরের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।
এদিকে ভিডিওটি মুহুর্তের মধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল হলে ক্ষোভে ফেটে পড়ে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। দ্রুততম সময়ে আজাদের শাস্তি দাবী করেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ গাালিগালাজ কেউ সহ্য করবে না। নুরুল আজাদ শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। চকরিয়াকে অশান্ত করতে এটা পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। তাকে দ্রুত গ্রেফতার করায় পুলিশকে ধন্যবাদ জানান তিনি।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও ছাত্রলীগ সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য লাইভে এসে ফেসবুকে প্রচার করার অভিযোগে নুরুল আজাদকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার বিকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

SHARE