প্রধানমন্ত্রীর জমি ও ঘর উপহার; দারুন খুশি নারী নরসুন্দর শেফালী রানী

192

।।দেশরিভিউ, স্থানীয় প্রতিনিধি।।

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার নারী নরসুন্দর শেফালী রানী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া জমি ও ঘর উপহার পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শেফালীর হাতে ৫ শতাংশ জমি ও সরকারি ঘরের অনুদানের কাগজ তুলে দেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান। শেফালী ১৫ বছর ধরে দোগনা বাজারে পুরুষের চুল-দাড়ি কেটে সংসার চালাচ্ছেন।

শেফালীকে ঘর ও জমির কাগজ দেওয়ার অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এনামুর বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন, বাংলাদেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না। সেই লক্ষ্যে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের একমাত্র নারী নরসুন্দর শেফালী রানীকে জমি ও ঘর বরাদ্দের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। সেই ঘর ও জমির কাগজপত্র নিয়ে তাঁর বাড়িতে এসেছি। দুই মাসের মধ্যেই তাঁর ঘর নির্মাণের কাজ শেষ হবে।’

অন্যের বাড়ির বারান্দায় সেলুনের কাজ করে আসছিলেন নারী নরসুন্দর শেফালী রানী

এসময় গনমাধ্যমে শেফালী রানী নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন নারী হয়ে পুরুষের চুল কাটি—এটা নিয়ে প্রথমে মানুষ হাসাহাসি করতেন। মনে মনে ভয় পেতাম, যাদের চুল কাটি তাদের কেমন দেখাবে। তবে ধীরে ধীরে সব ঠিক হয়ে যায়।’ তিনি বলেন, ‘গ্রামের বাজারে প্রতিদিন ২০০ থেকে ৩০০ টাকা আয় হয়। হাটের দিন একটু কাজ বেশি হয়। আবার দুই-এক দিন গ্রাহক থাকে না। তখন বাজারের বিভিন্ন দোকানে পানি আনার কাজ করি। এতে একটু বাড়তি আয় হয়।’
শেফালী রানী আরও বলেন, ‘আমার নিজের কোনো জায়গা নেই। অন্যের বাড়ির বারান্দায় সেলুন দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী আমাকে ৫ শতাংশ জমি ও ঘর দেওয়ায় তাঁর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’

SHARE