বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে বাদ দিয়ে মেয়রের ‘আত্মপ্রচার’

731
নগরীর লালখান বাজার-মুরাদপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা আখতারুজ্জামান চৌধুরী ফ্লাইওভারের রক্ষণাবেক্ষণ ও সৌন্দর্যবর্ধন কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আ জ ম নাছির উদ্দিন।

।।দেশরিভিউ চট্টগ্রাম।।

নগরীর লালখান বাজার-মুরাদপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা আখতারুজ্জামান চৌধুরী ফ্লাইওভারের রক্ষণাবেক্ষণ ও সৌন্দর্যবর্ধন কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন অনুষ্ঠানের ব্যানারে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের ছবি থাকলেও বাদ পড়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি।

সরকারী উন্নয়নমূলক সংস্থা সিটি কর্পোরেশনের প্রকল্পের ব্যানারে জাতির জনক ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি না থাকার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন অনেকেই। প্রশ্ন তুলেছেন, চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে লালখান বাজরস্থ ফ্লাইওভারের নিচে আয়োজিত সমাবেশের মাধ্যমে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করেন।

এর আগে চট্টগ্রামের অলঙ্কার মোড়ে ‘শেখ রাসেল চত্বর’ ঘোষনা দিয়ে নির্মিত সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্প নিয়েও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিতর্ক উঠে। ঐ প্রকল্পের দেয়ালে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের প্রতিচিত্র স্থাপন করা হলেও উপেক্ষিত ছিল খোদ শেখ রাসেলর ছবি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে প্রতিবাদের মুখে দ্বিতীয় দফায় ফলকটি পুন-নির্মাণ করা হয়। এতে শেখ রাসেলের ক্ষুদ্র আকৃতির প্রতিচিত্র দেয়ালে শোভা পেলেও মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের বিশাল আকারের ছবির পাশে তা বেশ দৃষ্টিকটু ছিল।

গত বছরের মে মাসে চট্টগ্রামের অলঙ্কার মোড়ে ‘শেখ রাসেল চত্বর’ ঘোষনা দিয়ে নির্মিত সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্পের ছবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিতর্ক উঠে।

ফেসবুকে রাসেল মাহমুদ লিখেছেন “বিএনপি জামায়াতের সমর্থনে নির্বাচিত চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন করে দল দুটির নেতাকর্মীদের কাছে ঘৃণিত হয়েছিলেন। আর বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে বাদ দিয়ে বিএনপি জামায়াতের নেতকর্মীকে খুশি করতে চাইছেন।”

এদিকে সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়নমূলক প্রকল্পের ব্যানারে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি বাদ দেওয়ার কারন জানতে চাইলে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বশীল কোন কর্মকর্তা সরাসরি বক্তব্য দিতে রাজি হয়নি।

SHARE