বন্দরনগরীতে ট্রাফিক সচেতনতায় বিশেষ উদ্যোগ

413

।দেশরিভিউ-চট্টগ্রাম।

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে ট্রাফিক সচেতনতায় বিশেষ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ।

শনিবার সকাল থেকে নগরীর ব্যস্ততম জিইসি মোড় এলাকায় নগর পুলিশের ট্রাফিক (উত্তর) বিভাগের ডিসি হারুনুর রশীদ হাযারীর নেতৃত্বে ট্রাফিক সচেতনতামূলক অভিযান শুরু হয়।

অভিযানে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রাস্তা পারাপার, হেডফোন ব্যবহার, সিট বেল্ট এবং হেলমেড ব্যবহার ছাড়া গাড়ি ও মোটরসাইকেল চালানোর ব্যাপারে যাত্রী ও পথচারীদের সতর্ক করা হয়।

অভিযানে যেসকল পথচারী মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে, বা হেডফোনে গান শুনতে শুনতে ব্যস্ততম রাস্তা পার হন তাদের তাৎক্ষণিক আটক করে সতর্ক করা হয় এবং হেডফোন কেড়ে নিয়ে গাড়ির চাকার নিচে পিষ্ট করা হয়।

অভিযান প্রসঙ্গে ডিসি ট্রাফিক (উত্তর) হারুনুর রশীদ হাযারী জানান, অবৈধ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রবিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযানের পাশাপাশি পথচারী তথা নগরবাসীকে সচেতন করতে এই সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

পথচারীরা নিজেরা সচেতন না হলে সড়ক দূর্ঘটনা প্রতিরোধ বা সুষ্ঠু ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সম্ভব নয়। যারা ফোনে কথা বলতে বলতে বা হেডফোনে গান শুনতে শুনতে গাড়ি চালান বা রাস্তা পারাপার হন তারা অমনোযোগী থাকেন।

এর ফলে তারা দুর্ঘটনার শিকার হন অথবা দুর্ঘটনার কারণ হন। তাই সবাইকে সতর্ক ও সচেতন করতে এ ধরনের অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

হারুনুর রশীদ হাযারী আরো জানান, মোটরসাইকেলের চালক ও দ্বিতীয় আরোহীর হেলমেড ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ফিটনেসবিহীন বা প্রয়োজনীয় কাগজপত্রবিহীন যানবাহন আটক ও মামলা দিয়ে জরিমানা আদায় করা হচ্ছে।

গত ১৬ এপ্রিল থেকে নগরীতে ট্রাফিক পক্ষ-২০১৯ শুরু হয়েছে, আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত পালিত হবে বলে জানান ডিসি ট্রাফিক হারুনুর রশীদ হাযারী।

SHARE