বিয়ে করলেই ক্যারিয়ারে ভাটা পড়ে নাঃ আলিয়া ভাট

33

বলিউডে উঠতি নায়িকাদের মধ্যে যে আলিয়া ভাট বেশ জনপ্রিয় তা বলার অপেক্ষা রাখে না। রঙ্গীন এ দুনিয়ায় অনেক অভিনেত্রী পারিবারিক পরিচয়ে হয়েছেন জনপ্রিয়। আলিয়া ভাটের বাবা-কাকা থেকে অনেকেই সিনেমার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। তবে তাদের পরিচয়ে নয় বলিউডে  স্থান পোক্ত করেছেন নিজ যোগ্যতা দিয়েই। বিয়ে করলে ক্যারিয়ার ভাটা পড়ে এমন ধারণা পোষণ করেন অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী। তাদের সঙ্গে একমত নন এ সময়ের জনপ্রিয় তরুণ অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। বিয়ে নিয়ে মনোভাব ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেছেন বিয়ে করলেই ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায় না।

কলকাতার বাংলা দৈনিক আনন্দবাজারের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে এমনটি জানিয়েছেন মহেষ ভাট কন্যা।

আরেক বলিউড অভিনেত্রী সোনম কাপুরের আসন্ন বিয়ে নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে আলিয়া বলেন, ‘আমি ভীষণ খুশি আর এক্সাইটেড ফর সোনম। কারিনা কাপূর, সোনম এরা ক্যারিয়ারের যে পর্যায়ে এসে বিয়ে করলেন, তাতে সকলের সামনে নতুন উদাহরণ তুলে ধরলেন। আমার তো মনে হয় যে, বিয়ে মানেই ক্যারিয়ার শেষ নয়। আনুষ্কা হোক বা বেবো বা সোনম… এঁদের সকলের জন্যই আমি খুব খুশি। আমিও যদি  কয়েক বছরের মধ্যে বিয়ে করি, তা হলে তাদের উদাহরণটা খুব কাজে লাগবে। আর একটা কথা বলি। সোনমের বিয়েতে করণ (জোহর) পারফর্ম করছেন। সেটা দেখার জন্য আমি রীতিমতো উদগ্রীব (হাসি)!’

এছাড়া প্রথমবারের মত ছবিতে মায়ের সঙ্গে অভিনয় করছেন এ অভিনেত্রী। সে অনূভুতি জানাতে গিয়ে আলিয়া বলেন, ‘জানি না, মেঘনার আগে কেন কেউ আমাকে আর মাম্মিকে (সোনি রাজদান) একসঙ্গে ছবিতে নেননি। প্রথমে খবরটা পেয়ে খুব খুশি হয়েছিলাম। কিন্তু টেনশনেও থাকতাম। মা সংলাপ ভুলে যাবে না তো! আসলে বাড়িতে মা দুর্বোধ্য হিন্দি বলেন। আর ছবিতে তো উর্দু বলতে হয়েছে! কিন্তু আমার মতোই মা-ও সাবলীল। আর মাকে সেটে দেখার অনুভূতিই আলাদা। আমি একদম আমার মায়ের মতো। কিন্তু মায়ের একটা খারাপ স্বভাব আমি পেয়েছি,  লোককে ওষুধ এবং ডাক্তার নিয়ে জ্ঞান দেওয়া। যখন মা কাউকে জ্ঞান দিতেন, আমি মাকে বকতাম, ‘তুমি ডাক্তার নও।’ এখন আমিও একই কাজ করি।’

 

দেশরিভিউ / আরিফুল ইসলাম

SHARE