বেলুচিস্তানে উদ্বেগজনক হারে মহিলারা ‘গুম’ হচ্ছে: এইচআরসিপি

245

।।দেশরিভিউ আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

বেলুচিস্তানে সত্য-সন্ধানের মিশনের পরে একটি বিশদ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশন (এইচআরসিপি)। তারা বলছে যে এই প্রদেশটিকে রাজনৈতিকভাবে সংক্ষিপ্ত রূপ দেওয়া হচ্ছে। তারা বলছেন, এখানে মহিলারা প্রতিনিয়ত ‘গুম’ হচ্ছে।

বেলুচিস্তানে গুম হওয়ার ঘটনা অব্যাহত রয়েছে জানিয়ে এইচআরসিপি বলছে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ক্ষতিগ্রস্থদের পরিবারগুলো মামলা করতে ভয় পাচ্ছে।

বেলুচিস্তানে উদ্বেগজনক প্রবণতা হলো ডেরা বুগতি এবং আওরানের মতো নির্দিষ্ট কিছু অঞ্চলে মহিলারা ‘গুম’ হচ্ছেন। তবুও এই মামলাগুলি রিপোর্ট বা রেকর্ড করা হয় না।

এইচআরসিপি’র তদন্তে আরও প্রমাণিত হয়েছে যে শত শত কয়লা খনি এমন লোক দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে যাদের জরুরী অবস্থা মোকাবেলা করার জন্য বা আর্থিক নিরাপত্তা সরবরাহের জন্য প্রযুক্তিগত দক্ষতা বা প্রযুক্তিগত দক্ষতা নেই।

মিশনটিতে দেখা গেছে যে সুরক্ষা সংস্থাগুলি কয়লা খনি থেকে প্রতি টন উৎপাদনে একটি বেসরকারী সুরক্ষা চার্জ আরোপ করেছে, যা খনি মালিকরা এবং শ্রমিক ইউনিয়ন একসাথে চাঁদাবাজি বলে গণ্য করেছেন।

বেলুচিস্তান বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনিয়ন্ত্রিত সম্পৃক্ততা এবং সুরক্ষা কর্মীদের স্থায়ী উপস্থিতিও শেষ হতে হবে।

এইচআরসিপি সুপারিশ করে, এখানে প্রাদেশিক সরকার এবং বেসামরিক প্রশাসনের অবশ্যই কোনও প্রকার হস্তক্ষেপ ছাড়াই প্রদেশের কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। তদুপরি, একটি আইন করতে হবে, বলপূর্বক নিখোঁজদের খুঁজে বের করা, অপরাধীকে শাস্তি দেয়া এবং ক্ষতিগ্রস্থদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়া।

SHARE