ব্যবসায়ী মিলন হত্যার রায়, ৭ জনের ফাঁসি

15

গাজীপুরে পাওনা টাকা আদায় করাকে কেন্দ্র করে এক ব্যবসায়ীকে খুনের দায়ে সাতজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক একেএম এনামুল হক এ আদেশ দেন। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘ সাতবছর পর দেওয়া হলো আলোচিত এই মামলার রায়।

নিহত ব্যবসায়ীর নাম মিলন ভূঁইয়া। তিনি মহানগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো রাজিব হোসেন, মো. কাইয়ুম, রাজিব হোসেন, ফারুক হোসেন, শফিকুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী হোসেন ও মোহাম্মদ আলী। এদের প্রত্যেককে মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আরেক আসামি মাসুদকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে মামলার এজাহারে থাকা দুইজনকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, মিলন ভূঁইয়া নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত বাঁশ-কাঠ-প্লেন শিট ভাড়ার ব্যবসা করতেন। ব্যবসায়ের পাওনা টাকা আদায় করাকে কেন্দ্র করে আসামিদের সঙ্গে তার বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় গাজীপুর মহানগরের ভাওয়াল জাতীয় উদ্যানের সামনে আসামিরা মিলনের গতিরোধ করে এবং তাকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। খবর পেয়ে তার স্বজনরা মিলনকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মিলনের মামা আকতার হোসেন বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনা তদন্ত শেষে ১০ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে সিআইডি। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে সোমবার আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় সাতজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন বাকিরা পলাতক।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE