ভরা বর্ষায় তীব্র তাপদাহে পুড়ছে মানুষ

25

ভরা বর্ষা, কিন্তু আকাশে নেই কালো মেঘ, নেই বৃষ্টির দেখা। খরতাপে পুড়ছে দেশ। শ্রাবণের আকাশ মানে কালো মেঘের ঘনঘটা। তার বদলে রৌদ্রজ্জ্বোল আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে সাদা মেঘের ভেলা। তীব্র গরম আর তাপদাহে পুড়ছে মানুষ। বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, বাড়ছে তাপমাত্রা।

তীব্র গরমে একটুখানি স্বস্তি পেতে অনেকেই গলা ভিজিয়ে নিচ্ছেন রাস্তার পাশের অস্বাস্থ্যকর শরবতে। গরমে শিশু আর বৃদ্ধদের পাশাপাশি অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকেই।

কবে কমবে এই অসহনীয় গরম? কবে নেমে আসবে শ্রাবনের শীতল ধারা? জবাবে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, রাজধানীতে আজও তাপপ্রবাহ বিদ্যমান থাকবে। শনিবার থেকে সারাদেশে কমতে থাকবে তাপমাত্রা। তবে দক্ষিণে তাপমাত্রা যেভাবে আছে, সেভাবেই থাকবে। মধ্যাঞ্চল থেকে দেশের উত্তর পশ্চিমাঞ্চল ও উত্তরপূর্বাঞ্চলে তাপমাত্রা কমবে। আগামী ৭২ ঘণ্টায় সারা দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে। পরবর্তী ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর প্রভাবে সারা দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে।

শুক্রবার ঢাকার তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩৬ ডিগ্রি, সিলেটে ৩৭.৬ডিগ্রি, বরিশালে ৩২.২ ডিগ্রি, রংপুরে ৩৬.৯ ডিগ্রি, খুলনা ৩৪.২ ডিগ্রি এবং চট্টগ্রামে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস।

দেশরিভিউ/ এস এস

SHARE