ভারতের বিরুদ্ধে ‘নির্লজ্জতার’ অভিযোগ বিএনপি নেত্রী রুমিন ফারহানার

3756

।।দেশরিভিউ-সম্পাদকীয়।।

ভারত সরকার এবং ক্ষমতাসীন বিজেপির বিরুদ্ধে বিএনপি নেত্রী রুমিন ফারহানা ‘নির্লজ্জতার’ অভিযোগ এনেছেন। সম্প্রতি একটি জাতীয় দৈনিকের সাথে একান্ত আলাপকালে তিনি ভারতের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলেছেন। বিএনপি যখন ভারতের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করছে ঠিক তখনি বিএনপির কূটনৈতিক উয়িংয়ের অন্যতম সদস্য রুমিন ফারহানা ভারত ও ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপিকে ‘নির্লজ্জ’ মন্তব্য করায় ভারত-বিজেপি-বিএনপি সম্পর্ক আরো তলানিতে যাবে মনে করছে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টরা।

জাতীয় দৈনিকটির সাথে আলাপকালে রুমিন ফারহানা বলেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে বিজেপি ও কংগ্রেসের সঙ্গে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির বন্ধুত্বপূর্ন সম্পর্ক আছে। কিন্তু ২০১৪ সালে ভারত সরকার নিলর্জ্জভাবে জাতীয় পার্টিকে কানে ধরে বিরোধী দল বানিয়েছিলো।

আলাপকালে ভারত সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে রুমিন ফারহানা বলেন, জোর জবরদস্তি করে এরশাদ সাহেবকে নির্বাচনে আনা হয়েছে। তিনি নির্বাচন করতে চান নাই। শুধুমাত্র অবৈধ জনবিচ্ছিন্ন ভোটারবিহীন নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সরকার এসেছে তাকে বৈধতা দেয়ার জন্য ভারত যা করেছে এটা সত্যি ন্যাক্কারজনক।

সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সৈন্য-সামন্ত নিয়ে দেশ দখল করে আমাদেরকে পাশের দেশের কেউ ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে আমরা আশা করি না।

চীনের সাথে বিএনপির ঐতিহাসিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মধ্যে বর্তমানে দূরত্ব হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন,
আমি এটাকে দূরত্ব মনে করি না। দেখুন, রাষ্ট্র যখন কোন সরকার গঠিত হয় তখন আর একটি রাষ্ট্রের প্রধান সরকারকে স্বাভাবিক কার্যকলাপ পরিচালনা করার জন্য যেটা করার সেটা তাদের করতে হয়। অভিনন্দন জানানোর বিষয়টি যেটি আপনি বলছিলেন, সেটি সৌজন্যতার মধ্যে পড়ে। সুতরাং আমি মনে করি না বিএনপির সঙ্গে তাদের সম্পর্কের কোনো অবনতি হয়েছে বা বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এটা হচ্ছে দুটি দেশের মধ্যে সম্পর্কের বিষয় এবং সেই বিষয়টি যে সরকারই থাকুক না কেন সেই সম্পর্ক অব্যাহত থাকবে।

…দেশরিভিউ, সম্পাদকীয়

 

 

 

SHARE