ভ্যাকসিন নিয়ে দুঃসংবাদ দিলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিজ্ঞানী

69

।। দেশরিভিউ , সংবাদ ।।

২০২২ সালের আগে পর্যাপ্ত পরিমাণে করোনার ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে না। জীবনযাপন স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরতে অনেক সময় লাগবে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথম।

এ প্রসঙ্গে স্বামীনাথম বলেন, ডব্লিউএইচওর নেতৃত্বে বিভিন্ন দেশের কাছে সমানভাবে ভ্যাকসিন সরবরাহ করার যে উদ্যোগ (কোভ্যাক্স ইনিশিয়েটিভ) নেয়া হয়েছে তাতে করে আগামী বছরের মাঝামাঝি পর্যন্ত কয়েক কোটি ভ্যাকসিন সরবরাহ করা যাবে; এর মাধ্যমে ১৭০টি দেশ হয়তো কিছু সংখ্যক ভ্যাকসিন ডোজ পাবে।

২০২২ সালের শেষ নাগাদ হয়তো এ ভ্যাকসিন উৎপাদন ২শ’ কোটিতে পৌঁছাবে। এর আগে সব দেশে অল্পসংখ্যক ভ্যাকসিন ডোজ পাবে; যা দিয়ে চাহিদা ক্ষুদ্র অংশ মেটানো সম্ভব। তাই সামাজিক দূরত্ববিধি মানা এবং মাস্ক না পরে যদি মানুষ চলতে থাকে তাহলে পরিস্থিতি এর আগে স্বাভাবিক হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

সৌম্য স্বামীনাথম বলেন, হয়তো অনেকে ভাবছেন আগামী বছরের জানুয়ারি নাগাদ ভ্যাকসিন আসবে বাজারে এবং তা হলেই সবকিছু আবার স্বাভাবিক হবে। কিন্তু আপনি যা ভাবছেন তা হবে না। কারণ নিরাপদে মানুষের চলাচল নিশ্চিত করতে হলে সবার কাছে পৌঁছাতে হবে ভ্যাকসিন। আর এটা ২০২২ সালের আগে সম্ভব না।

তবে চীন দ্রুতই ভ্যাকসিন বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে। গত মঙ্গলবার চীনের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের উ গুইঝেন জানিয়েছেন, এ বছরের নভেম্বর অথবা ডিসেম্বরের মধ্যে স্থানীয়ভাবে তৈরি ভ্যাকসিন চীনাদের কাছে সরবরাহ করা হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শিগগিরই ভ্যাকসিন আনার ঘোষণা দিয়েছেন

SHARE