মনোনয়ন ফরম নিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউনুছ

137


।।দেশরিভিউ ঢাকা।।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন একসময়ের তুখোড় ছাত্রলীগ নেতা ও মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ।

বুধবার দুপুরে ঢাকায় ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর দলীয় কার্যালয় থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন তিনি।

মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ চট্টগ্রামের প্রয়াত মেয়র এ বি মহিউদ্দিন চৌধুরীর দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ ছিলেন এবং চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ছিলেন।

জানা গেছে, একসময়ের তুখোড় ছাত্রনেতা মুহাম্মদ ইউনুছ দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত রাজনৈতিক ব্যক্তি।
মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে তৎকালীন ছাত্রলীগ নেতা এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, মোছলেম উদ্দিন আহমেদ এবং নায়েক সুবেদার সিদ্দিকুর রহমানসহ শহরের জুবিলি রোডের পুরনো বিমান অফিসের সামনে নেভাল অ্যাভিনিউ মোড়ে পাকিস্তানি নৌকমান্ডোদের হাতে রাইফেল সহ আটক হন। দীর্ঘ দুইমাস ছয় দিন বন্দি থাকাকালীন সময়ে তারা অবর্ননীয় নির্যাতনের শিকার হন। পরে চট্টগ্রাম কারাগারের তৎকালীন জেলার আব্দুল খালেকের সহায়তায় পালিয়ে গিয়ে পুনরায় মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করেন।

বক্তব্য রাখছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ(ফাইল ছবি)

স্বাধীনতা ও পঁচাত্তর পরবর্তীকালেও মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ দলের নিবেদিত প্রান হিসাবে কাজ করেছেন। বঙ্গবন্ধু হত্যার বদলা নিতে মৌলভী সৈয়দ, এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সাথে যোগ দিয়েছিলেন সশস্ত্র সংগ্রামেও। ১৯৭৭ সালে কারান্তরীণ থেকে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন তিনি। পরবর্তীতে ১৯৮১ সালে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পান মুহাম্মদ ইউনুছ। এসময় সাধারন সম্পাদক ছিলেন বর্তমান সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। পরে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দায়িত্বও পালন করেন তিনি। এছাড়াও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় উপ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন এই বীর মুক্তিযোদ্ধা।

বঙ্গবন্ধু হত্যা প্রতিবাদ ফোরামের আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ দীর্ঘদিন এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর পাশে থেকে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের উদ্যোগে চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করেছেন। মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, ইতিহাস ও সংস্কৃতি প্রসার ও বিস্তারে তার ভূমিকা অপরিসীম। সর্বশেষ চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ চট্টগ্রাম বিজয় মেলা পরিষদের মহাসচিবের দায়িত্বভার গ্রহন করেন।

এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুর পরের বছর সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বিজয় মেলা পরিষদের নিয়ন্ত্রন নিজের দখলে নিলেও ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে তা আবার মু্ক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুছ নিজের নিয়ন্ত্রনে আনেন। এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে গণভবনে দেখা করে চট্টগ্রামের রাজনীতির সার্বিক বিষয় জানান। প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নগর আওয়ামী লীগের দু’ধারার রাজনীতিকে একসুতোয় সমন্বয় করেন এই মুক্তিযোদ্ধা।

এদিকে চসিক নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন নেওয়ার পর দেশরিভিউকে মুক্তিযোদ্ধা ইউনুছ বলেন “দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় থাকলেও অতীতে কখনো মনোনয়ন নেওয়ার চেষ্টা করিনি। নেত্রী যদি আমার উপর আস্থা রাখেন তাহলে আমি শতভাগ চেষ্টা করব চট্টগ্রামবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করতে। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।”

SHARE