মাঠ পর্যায়ে’ আন্দোলনের ইতি বুয়েটে

105

।।দেশরিভিউ, নিউজরুম।।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার বিচারসহ ১০ দফা দাবিতে চলমান ‘মাঠ পর্যায়ের’ আন্দোলনের ইতি টেনেছেন তার সহপাঠীরা। তবে আগামীকাল বুধবার (১৬ অক্টোবর) তারা সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখে দিতে গণশপথে অংশ নেবেন। পাশাপাশি আবরার হত্যার ঘটনায় জড়িত হিসেবে যাদের নাম চার্জশিটে আসবে, তাদের স্থায়ী বহিষ্কারের আগ পর্যন্ত বুয়েট শিক্ষার্থীরা কোনো ধরনের একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবেন না বলেও জানান তারা।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বুয়েট শহিদ মিনারে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, গত কয়েক দিনে আমরা অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ করেছি, আমাদের ভাইয়ের লাশকে পর্দা হিসেবে ব্যবহার করে আড়ালে-অন্তরালে অনেক স্বার্থন্বেষী সংগঠন নিজেদের এজেন্ডাকে প্রমোট করা চেষ্টা করেছেন। আমরা সুস্পষ্টভাবে বলতে চাই, এদের সঙ্গে আমাদের কোনো ধরনের সম্পৃক্ততা নেই। তারা দেশবাসীকে এসব স্বার্থান্বেষীদের এজেন্ডাতে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

তারা বলেন, রাজপথে আমাদের অবস্থানকে দীর্ঘায়িত করে এসব অপশক্তিকে এই আন্দোলন ভিন্নখাত প্রবাহিত করার কোনো সুযোগ আমরা দিতে চাই না। বুয়েট প্রশাসনের সদিচ্ছার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা আগামীকাল আমাদের মাঠ পর্যায়ের আন্দোলনকে আপাতত ইতি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামীকাল আমরা বুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা মিলে এক গণশপথে অংশ নেব। গণশপথের মাধ্যমে আমরা আমাদের ক্যাম্পাসে সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তিতে রুখে দেওয়ার ব্যাপারে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হব।

এসময় আন্দোলনকারীরা আরও বলেন, মাঠ পর্যায়ের আন্দোলন ইতি টানলেও আমাদের দাবি-দাওয়াগুলো প্রশাসন বাস্তবায়ন করছে কি না, আমরা তা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করতে থাকব। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা চার্জশিট দেওয়ার পর অপরাধীদের স্থায়ী বহিষ্কারের আগ পর্যন্ত বুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীরা কোনো রকম অ্যাকাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবে না।

SHARE