যশোরে বিয়ে বাড়িতে ইউএনওর হানা, বর-কনেসহ ৮ জনের কারাদণ্ড

    137

    ।দেশরিভিউ-যশোর।

    যশোরের কেশবপুরে বাল্যবিয়ের অপরাধে বর ও কনেসহ তাদের আত্মীয়-স্বজনদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

    ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, উপজেলার ভোগতীনরেন্দ্রপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক সরদারের মেয়ে সুরাইয়া খাতুনের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী মণিরামপুর উপজেলার মুন্সিখানপুর গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলামের বিয়ে হয়।

    শুক্রবার রাতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান তাদেরকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে কনে সুরাইয়া খাতুনকে (১৩) ১ মাসের আটকাদেশ, বর সাইফুল ইসলামকে দেড় বছর, কনের বাবা আব্দুর রাজ্জাককে ১ বছর এবং বরের তিন ভগ্নিপতি লিটন মোল্যা, কবির হোসেন ও নূরুনবীকে ১ বছর করে কারাদণ্ড দেন।

    এদিকে শনিবার সকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানূর রহমান একই গ্রামের আর একটি বাল্যবিয়ের কথা জানতে পেরে ইসমাইল সরদারের ছেলে হাসান সরদার (১৭) ও শরিয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার রায়েরকান্দি গ্রামের কাদের মুন্সির কন্যা রানী খাতুনকে (১৫) আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ১ মাস করে আটকাদেশ প্রদান করেন।

    এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান জানান, কেশবপুরে বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

    SHARE