যুক্তফ্রন্ট নতুন ষড়যন্ত্রে নেমেছে: মোহাম্মদ নাসিম

50

জুডিশিয়াল ক্যু’তে ব্যর্থ হয়ে নতুন রাজনৈতিক মোর্চা যুক্তফ্রন্ট নতুন ষড়যন্ত্রে নেমেছে বলে মন্তব্য করেছেন ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

শ‌নিবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপু‌রে আওয়ামী লী‌গের সভাপ‌তির ধানম‌ন্ডি রাজ‌নৈ‌তিক কার্যারয়ে ১৪ দলের সভা শেষে সাংবা‌দিক‌দের প্র‌শ্নের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম এ মন্তব্য ক‌রেন।

১৪ দলের এই নেতা বলেন, ‘জুডিশিয়াল ক্যু করার চেষ্টা করা হয়েছিল, যা প্রকা‌শিত। একজন বিশিষ্ট আইনজীবী কিভাবে একজন সাবেক বিচারপতিকে ব্যবহার করে জুডিশিয়াল ক্যু করে পাকিস্তানের মতো অবস্থা সৃষ্টি করতে চেয়েছিলেন, তা জানা গেছে। পাকিস্তানে আজকে যে অবস্থা, ঠিক একই অবস্থা তারা তৈরি করতে চে‌য়ে‌ছিল বাংলাদেশে। শেখ হা‌সিনা ও ১৪ দলের দৃঢ়তায় সেই ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়ে যায়। তারা এখন আবার নতুন চক্রান্ত ক‌রে নির্বাচনকে দীর্ঘায়িত করার চেষ্টায় লিপ্ত।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যখনই নির্বাচন আসে, ভোটের মাধ্যমে জনগণের রায়ের সময় আসে, তখনই মুখ চেনা মহল তৎপর হয়ে ওঠে। ২০১৪ সা‌লে নির্বাচ‌নের সময়ও এই অশুভ মহলটি জ্বালাও-পোড়াও করেছে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে।‌ ঠিক আবার যখন নির্বাচন আসল তখন আবার সেই মুখ চেনা মহল তৎপর হয়ে উঠেছে।

বর্তমান সরকারকে হটাতে বিএনপি শপথ নিয়েছে— দলটির মহাস‌চিব মির্জা ফখরুল ইসলামের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘কোনো দল বা গোষ্ঠী নয়, জনগণই একমাত্র সরকারকে হটানোর ক্ষমতা রাখে। তাই মির্জা ফখরুল ইসলামের স্বপ্ন পরিণত হবে দুঃস্বপ্নে।’

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে নির্বাচনে কোনো কারচুপি করার সু‌যোগ নেই মন্তব্য ক‌রে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ব‌লেন, ‘নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেছে, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বাভাবিক নিয়মে উৎসাহ-উদ্দীপনা নি‌য়ে দে‌শের জনগণ অ‌পেক্ষা কর‌ছে। ‌নির্বাচন যথাসম‌য়ে হ‌বে, এর অন্যথা হবে না।’

সংবিধানের বাইরে নির্বাচন হতে পারে— বিএন‌পি নেতা মওদুদ আহ‌মে‌দের এমন বক্তব্যের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে। সংবিধান বাই‌রে কোনো কাজ বাংলাদেশে হবে না। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নির্বাচন হবে। তাই আমরা আন্তরিকভাবে চাই, নির্বাচ‌নে সবাই অংশগ্রহণ করুক।’

নির্বাচনের আগে বিএনপির সঙ্গে সংলাপ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কোনো অর্থহীন সংলাপের পক্ষে আমরা নই। সংলাপের অর্থই হলো নির্বাচনকে পেছানো এবং অসাংবিধানিক সরকার গঠন করা। ‌সেই স্বপ্ন আর পূরণ হবে না।

জাতীয় পার্টি জেপির মহাসচিব শেখ শহীদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, বাংলাদেশ জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, উপদফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, বাসদের আহ্বায়ক রেজাউর রশীদ খানসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE