যেভাবে গুহায় গিয়েছিল কিশোর ফুটবলাররা?

21

বিশ্বজুড়ে এই মুহূর্তে আলোচিত ঘটনার একটি থাইল্যান্ডের গুহায় আটকে পড়া ১২ সদস্যের এক কিশোর ফুটবল দল। তবে সবার মনে প্রশ্ন, তারা কেন গুহার এতোটা গভীরে গিয়েছিল?

প্রশ্নের উত্তর অবশ্য দিয়েছে কানাডার সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল নিউজ। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, ওই কিশোর ফুটবলাররা গুহার এতোটা গভীরে যেতে চায়নি; বরং গুহাতে ঢোকার পর তারা নিরাপদ আশ্রয় খুঁজছিল। আর এ কারণেই তারা ভেতরের দিকে যেতে বাধ্য হয়েছিল। গুহার ভেতরে পানি যতো বেড়েছে, তাদের ততো সরে যেতে হয়েছে।

এই গুহাটি প্রায় ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ। আর আটকে পড়া ফুটবলাররা গুহার ৪ কিলোমিটার ভেতরে অবস্থান করছে।গুহার মধ্যে এখন অনেক পানি। তাই তাদেরকে সাঁতরে বের হতে হবে। এজন্য প্রথমে তাদেরকে স্কুবা ডাইভিং সেখানোর চেষ্টা করা হয়েছিল। তবে সে পরিকল্পনা কাজে লাগেনি।

সেজন্য পরিকল্পনা পরিবর্তন করা হয়েছে। বলা হয়েছে, উদ্ধার কাজে নিয়োজিত ডুবুরিরা তাদের সঙ্গে করে নিয়ে বের হবেন। উদ্ধারের আগে ডুবিরিদের অক্সিজেন সিলিন্ডার থেকে কিশোরদের পানির নিচে অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে।

এদিকে, আটকে পড়া কিশোরদের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এসব কিশোর ফুটবলারদের কোচ তাদেরকে নিয়মিত অনুশীলন করাতেন এবং সাঁতারের জন্য নিয়ে যেতেন। গেল ২৩ জুনও কোচ সেটিই করেন। আর সেদিনেই ফুটবলাররা গুহায় আটকা পড়ে।

তবে এ ব্যাপারে কোচের প্রতি কোনো অভিযোগ নেই কিশোরদের পরিবারের। এমনকি এসব পরিবারের পক্ষ থেকে কোচকে অপরাধবোধে ভুগতে নিষেধ করা হয়েছে। তারা মনে করেন না, এতে কোচের দোষ আছে।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE