রেকর্ড চুরমার করে সৌম্যর ডাবল সেঞ্চুরি

127

।দেশরিভিউ।

আসছে ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলে সৌম্য সরকারের জায়গা পাওয়াটা যে কোনো ভুল ছিল না, তা সমালোচকদের আঙুল দিয়ে দেখিলেন দিলেন এই হার্ডহিটার। বাংলাদেশের প্রথম কোনো ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ফরম্যাটে ডাবল সেঞ্চুরি করলেন তিনি।

রকিবুল হাসানকে পেছনে ফেলে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনী লিমিটেডের হয়ে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ১৪৯ বলে ২০০ রান করেছেন সৌম্য। এর আগে ২০১৭ সালে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে এই আবাহনীর বিপক্ষে ১৩৮ বলে রকিবুলের ১৯০ ইনিংসটিই এতদিন বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস ছিল।

সৌম্য শেষ পর্যন্ত ১৫৩ বলে ১৪টি চার ও ১৬ ছক্কায় ২০৮ রানে অপরাজিত থাকেন। সেই সঙ্গে তার দল আবাহনী শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ৯ উইকেটে হারিয়ে চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে চ্যাম্পিয়নের মুকুট পড়ে। এদিন সৌম্যর ১৬ ছক্কাও বাংলাদেশিদের মধ্যে সর্বোচ্চ ওভার বাউন্ডারির রেকর্ড। আগের রেকর্ডটি ছিল ১১ ছক্কার।

এর আগে গত ম্যাচে সেঞ্চুরি করে সমালোচকদের জবাব দিয়েছিলেন ভালোভাবেই। আর এবার তো রীতিমতো উড়ছেন সৌম্য সরকার। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগের শেষ ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের বিপক্ষে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পান আবাহনী লিমিটেডের এই ওপেনার। আর এবারও তার ঝড়ো ব্যাটে সেঞ্চুরিটি এলো।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে জিতলেই চ্যাম্পিয়ন এমন সমীকরণ নিয়ে নামে আবাহনী। তবে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামা শেখ জামাল তানবীর হায়দারের লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩১৭ রান করেন। তানবীর ১১৫ বলে ১০টি চার ও ৬টি ছক্কায় ১৩২ করে অপরাজিত থাকেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে থাকেন সৌম্য ও জহুরুল ইসলাম। ৭৮ বলে সেঞ্চুরির দেখা পান সৌম্য। তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে সমান ৮টি করে চার ও ছক্কা হাঁকিয়েছেন। লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারে এটি তার ষষ্ঠ সেঞ্চুরি।

এর আগে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে ৭৯ বলে ১০৬ রান করেছিলেন সৌম্য।

SHARE