লামায় অষ্টপ্রহর ব্যাপী ভূবনমঙ্গল তারকব্রহ্ম মহানামযঙ্গ ও মহতী ধর্মসভা অনুষ্ঠিত

69


স্বপন কর্মকার, লামা,বান্দরবানঃ বান্দরবানের লামায় ২৭তম লামা কেন্দ্রীয় শ্রী শ্রী হরিমন্দির প্রতিষ্টা বার্ষিকী উপলক্ষে মহোৎসব পরিচালনা কমিটির উদ্যাগে আয়োজিত আজ ২০শে জানুয়ারি রোজঃ বুধবার দুপুর ১২ : ০০ মিঃ সময় শ্রী শ্রী বিষুপূজার মধ্যে দিয়ে শ্রী শ্রী হরিমন্দির প্রাঙ্গণে অষ্টপ্রহর ব্যাপী মহানামযঙ্গের মহতী ধর্মসভা অনুষ্টিত হয়।


উক্ত মহতী ধর্মসভা’র মহোৎসব উদযাপন পরিষদের সন্মানিত সভাপতি শ্রী বাসু কান্তি দাশের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় দূর্গাপূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক অর্থ-সম্পাদক শ্রী গোপন কান্তি চৌধুরীর ও কুমকুম দাশ এর সঞ্চালনায় কেন্দ্রীয় হরিমন্দির পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশের স্বাগত বক্তব্যে প্রধান ধর্মীয় আলোচক ও মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন জগন্নাথানন্দ পুরী মহারাজ প্রতিষ্ঠিত আশ্রম অধ্যাক্ষ পাগলির আগা লামা, ধর্মীয় আলোক সিনিয়র শিক্ষক গজালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ইসকন শ্রী বাল নিমাই দাস অধিকারী । প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন লামা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন নবনির্বাচিত পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম, উপজেলা প্যানেল চেয়ারম্যান শ্রীমতি মিল্কী রাণী দাশ, সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন, লামা শ্রী শ্রী হরিমন্দির পরিচালনা পরিষদের সভাপতি প্রৌকশলী প্রসান্ত ভট্টাচার্য,লামা শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় দুর্গাপূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বিজয় আইচ্, শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় মহোৎসব উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি কাজল বরণ দাশ প্রমূখ সহ শত শত সনাতনী ভক্ত প্রাণ নর-নারী বৃন্দ উপস্হিত ছিলেন। উক্ত মহানামযঙ্গে অন্যান্য মাঙ্গলিক অনুষ্টানের মধ্যে ছিলেন দুপুর ১২: ৩০মিঃ সময় শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ পরিবেশনায় লামা কেন্দ্রীয় গীতা শিক্ষা নিকেতন। দুপুর ০২: ০০ মিঃ সময় স্বামীজি মহারাজকে বরণ, বিকাল ০৩: ০০ মিঃ সময় মনোঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্টান, পরিবেশনায় শংকর বেদান্ত মঠ ও মিশনের শিল্পীবৃন্দ, বিকাল ৪: ৩০মিঃ সময় পন্জ প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শ্রীমতি মিল্কী রাণী দাশ, সন্দ্যা ০৫: ০১মিঃ সময় গৌধুলী লগ্নে মহানামযঙ্গের শুভ অধিবাস পৌরোহিত্য ও অধিবাস কীর্ত্তন পরিচালনায় ছিলেন রাধা গৌবিন্দ মন্দির সুচিয়া চন্দনাইশ শ্রীমৎ প্রিয়ব্রত গোস্বামী (তনু), রাত ১০: ৩০মিঃ সময় আনন্দ বাজারে অন্নপ্রসাদ বিতরণ করেন।
২১ই জানুয়ারি ব্রহ্মমুল্হর্তে শ্রী শ্রী তারকব্রহ্ম মহানামযঙ্গ শুভ আরম্ভ উক্ত মহানামযঙ্গে মহানাম সুধা পরিবেশন করেছিলেন ১. গোপাল বাড়ী সম্প্রদায় -চট্টগ্রাম ২. শ্রী গুরু চৈতন্য সম্প্রদায় – ভোলা ৩. শ্রী গোকুল কৃষ্ণ সম্প্রদায় -গোপালগঞ্জ ৪. চিন্তাহারী সম্প্রদায় -চট্টগ্রাম । দুপুর ১২: ০০ সময় শ্রী শ্রী ঠাকুরের রাজ ভোগ দুপুর ০১: ০০ সময় আনন্দ বাজারে অন্নপ্রসাদ আস্বাদন সন্দ্যায় ০৬: ৩০ সময় শ্রী শ্রী ঠাকুরের প্রার্থনা রাত ০৯: ৩০মিঃ সময় আনন্দ বাজারে অন্নপ্রসাদ আস্বাদন।
২২ই জানুয়ারি ঊষালগ্নে নগর কীর্ত্তন পরিক্রমার মধ্যে দিয়ে মহানামযঙ্গ সমাপ্তি হবে।

SHARE