লোকসানের ভয়ে চামড়া কিনছেন না ব্যবসায়ীরা

41

উত্তরাঞ্চলের বৃহত্তম চামড়ার হাট নাটোরে আসতে শুরু করেছে কোরবানির চামড়া। কিন্তু এ বছর চামড়ার বাজারে খুচরা বিক্রেতা থাকলেও ঢাকা থেকে ট্যানারি মালিকরা আসেননি। মৌসুমী ব্যবসায়ীরা লাভের আশা করলেও আড়তদাররা লোকসানের ভয়ে বেশি দামে চামড়া কিনছেন না।

উত্তরাঞ্চলের সবচে বড় চামড়ার বাজার নাটোরের চক বৈদ্যনাথ আড়তে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ছোট-বড় ও মৌসুমী ব্যবসায়ীরা গ্রামগঞ্জ থেকে কেনা চামড়া বিক্রি করতে আসেন। কিন্তু এ বছর চামড়া বাজারে খুচরা বিক্রেতা থাকলেও ঢাকা থেকে ট্যানারি মালিকরা আসেননি চামড়া কিনতে। মৌসুমী ব্যবসায়ীরা লাভের আশা করলেও আড়ৎদাররা কেউই বেশি দামে চামড়া কিনছেন না।

আড়ৎদাররা জানান, মূলধন না থাকায় পর্যাপ্ত চামড়া কিনতে পারছেন না । আর যা কিনছেন তা বিক্রি করতে না পেরে আড়তে মজুদ করতে বাধ্য হয়েছেন।

ট্যানারি মালিকদের কাছ থেকে বকেয়া টাকা না পাওয়াসহ নানা কারণে চামড়ার এমন দরপতন বলে জানায় চামড়া ব্যবসায়ী গ্রুপ।

লুৎফর রহমান লাল্টু (সহ-সভাপতি, নাটোর জেলা চামড়া ব্যবসায়ী গ্রুপ) বলেন, টাকা পয়সার জন্য ব্যাপারিরা বলতেছে কিন্তু আমরা পারতেসি না তাদেরকে কোনো টাকা দিতে।

প্রতিবছর কোরবানির ঈদে নাটোরে ১১ লাখ পিস চামড়া কেনাবেচা হলেও এ বছর গরুর ৭০ হাজার এবং ছাগলের ৮০ হাজার পিস চামড়া কিনতে পেরেছেন আড়ৎদাররা।

দেশরিভিউ/এস এস

SHARE