শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় বাস চালক ও হেলপার আটক

58
রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে তিন বাসের রেষারেষিতে শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় দুই বাস চালক এবং দুই হেলপারকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-১)। সোমবার (৩০ জুলাই) দুপুরে তাদের আটক করা হয় বলে জানিয়েছে র‌্যাব।
এর আগে, রোববার (২৯ জুলাই) রাতে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলাটি করেন নিহত শিক্ষার্থী দিয়া খানম ওরফে মিমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহান হক মামলার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় দুর্ঘটনার মামলা হয়েছে। নিহত শিক্ষার্থী দিয়া খানমের বাবা মামলাটি করেন। মামলায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে, শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে ও দোষীদের শাস্তি দাবিতে বিমানবন্দর ও মিরপুরের কয়েকটি সড়ক অবরোধ করে রেখেছে শিক্ষার্থীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে পুলিশ।

রোববার (২৯ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে আবদুল্লাহপুর থেকে মোহাম্মদপুর রুটে চলাচলকারী জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর উঠে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম ও একই কলেজের ছাত্রী দিয়া খানম প্রাণ হারান। গুরুতর আহত আরো ১৪ জনকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

দেশরিভিউ/এস এস