শুধু তেল খরচে হারভেস্টার মেশিন দিয়ে ধান কেটে দেবে কৃষি বিভাগ

261

।।দেশরিভিউ নিউজডেস্ক।।

আগামী মে মাস থেকে বোরো ধান কাটা শুরু হবে। এসময় করোনা ভাইরাসের কারণে শ্রমিক সংকট দেখা দিলে কৃষকের বোরো ধান হারভেস্টার মেশিন দিয়ে কেটে দেবে চট্টগ্রামের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর।

সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম অঞ্চলে ২ লাখ ৪১ হাজার হেক্টর জমিতে চাষের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এ বছর ২ লাখ ৩০ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ হয়। গত মৌসুমে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৫২৩ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও বোরো চাষ হয় ২ লাখ ৩৯ হাজার ৬৪৪ হাজার হেক্টর জমিতে।

পোকার আক্রমণ ও বড় ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হওয়ায় এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি বোরো ধান ঘরে তোলা যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

করোনা ভাইরাসের কারণে দুশ্চিন্তায় চট্টগ্রামের কৃষি কর্মকর্তারা। কারণ করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া নিয়ে সমস্যা তৈরি হবে। এ ছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের আভাস পাওয়ায় কম সময়ের মধ্যে ধান কাটা ও ধান ঘরে তোলার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে চান তারা।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে হারভেস্টার মেশিন ব্যবহার করবেন তারা। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুর অঞ্চলে কৃষকদের ধান এ মেশিন দিয়ে কেটে দেবেন। এ জন্য কৃষকদের কাছ থেকে শুধু তেল খরচ নেবেন তারা।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন বলেন, মে মাসের শুরু থেকে ধান কাটা শুরু হবে। স্বাভাবিকভাবে করোনার কারণে শ্রমিক সংকট থাকবে। এ জন্য আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি কৃষকের ধান হারভেস্টার মেশিন দিয়ে কেটে দেওয়ার।

SHARE