শ্বাসকষ্টের রোগীর জন্য চসিক কাউন্সিলর মোরশেদ আলমের হটলাইন

182


।।মেহেদী হাসান, দেশরিভিউ।।
রোগীর শ্বাসকষ্টের কঠিন মুহূর্তে যে অক্সিজেন বাঁচিয়ে দিতে পারে একজন রোগীর প্রাণ- সেই অক্সিজেনের কৃত্রিম সংকট ও উচ্চমূল্যের কারনে ধুকছে মানুষ, মরছে মানুষ।

চট্টগ্রামের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও মানুষ পাচ্ছে না তার মৌলিক অধিকারের অন্যতম ‘চিকিৎসা সেবা’। নভেল করোনা ভাইরাস মহামারী শুরু থেকেই চট্টগ্রামের এমন ভয়াল দৃশ্য দেখছে নগরবাসী। জনগনের অভিযোগের আঙ্গুল যখন হসপিটাল মালিক ও ডাক্তার নেতাদের দিকে উঠেছে তখন অন্যদিকে মানবতার একহাত বাড়িয়ে দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরশনের ৮ নং শুলকবহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোরশেদ আলম।

চট্টগ্রামে করোনার এ ক্রান্তিলগ্নে অক্সিজেনের অভাবে নিভে যেতে বসা জীবন প্রদীপ জ্বালিয়ে রাখার লক্ষ্যে শ্বাসকষ্টে ভোগা রোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন কাউন্সিলর মো. মোরশেদ আলম।

এই সেবার আওতায় শ্বাসকষ্টে ভোগা নিজ ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের সেবা দিতে প্রস্তুত করা হয়েছে ১৫ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, ৩টি অ্যাম্বুলেন্স ও অক্সিমিটার এবং ২জন চিকিৎসক, ২ জন টেকনিশিয়ান ও ১০ জন স্বেচ্ছাসেবকের সমন্বয়ে একটি টিম।।
মোটামুটি ভ্রাম্যমান চিকিৎসা সার্ভিস হিসাবেই এটি কাজ করবে।

কাউন্সিলর মোরশেদ দেশরিভিউকে বলেন, অসুস্থ মানুষ জীবন বাঁচাতে এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ছুটতে ছুটতে অক্সিজেন ফুরিয়ে গাড়িতেই অনেকে মৃত্যু বরণ করছে। শ্বাসকষ্টে ভোগা অনেক রোগী অক্সিজেনের অভাবে ঘরেই মারা যাচ্ছে। মানুষের কষ্টের এমন নিদারুণ কথা চিন্তা করে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমার ওয়ার্ডে শ্বাসকষ্টে ভোগা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত বাসায় অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌছে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে অ্যাম্বুল্যান্সে করে পৌছে দেওয়া হবে হাসপাতালে। হাসপাতালে পৌঁছানোর আগ পর্যন্ত নিজস্ব চিকিৎসকের তত্বাবধানে রোগীকে রাখা হবে। এতে করে বেঁচে যেতে পারে একটি জীবন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মানুষের এমন কষ্ট আমাকে ব্যথিত করে। মানবিক মূল্যবোধের তাড়নায় আমি এই উদ্যোগ নিয়েছি। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে ওয়ার্ডবাসীর সেবা করা আমার নৈতিক দায়িত্ব।
মোরশেদ আলম বলেন, ইতিমধ্যে ১৫ অক্সিজেন সিলিন্ডার, পালস্ অক্সিমিটার, ৩টি অ্যাম্বুল্যান্স ও অন্যান্য চিকিৎসা সরঞ্জাম সংগ্রহ করেছি। অভিজ্ঞ চিকিৎসক ও অপারেটর দিয়ে আমরা বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে দিব। কোনো রোগীর অ্যাম্বুলেন্স প্রয়োজন হলে যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করে রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া হবে। এই লক্ষ্যে একটি হটলাইন নাম্বার চালু করা হয়েছে। হটলাইনে কল করলে খুবই অল্প সময়ের মধ্যে রোগী উল্লেখিত সেবা পাবেন। কোনো মানবিক মানুষ চাইলে অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে মানবিক এ কাজে আরো গতি আনতে পারেন বলে জানান মোরশেদ আলম।

বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকেলে চালু হতে যাওয়া এই সেবার আওতায় ০১৮৮৬ ৯৯০ ৯৯০ নাম্বারে ফোন দিলে রোগীরা অক্সিজেন ও অ্যাম্বুল্যান্স সেবা পাবেন বলে নিশ্চিত করেন মোরশেদ আলম। তবে সামর্থ্য অনুযায়ী এ সেবাটি শুধুমাত্র নগরীর ৮নং শুলকবহর ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দাদের জন্য চালু করা হয়েছে।

SHARE