সব কাগজপত্র দেখেই খালেদার জামিন নাকচ করেছেন আদালত: আইনমন্ত্রী

190

।দেশরিভিউ-জাতীয়।

মেডিকেল রিপোর্টের সব কাগজপত্র দেখার পরই বেগম জিয়ার জামিন আবেদন নাকচ করেছেন আদালত। তাই বিতর্কের কোনো সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা মডেল মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, কাগজপত্র দেখার পরে আদালত এই জামিন আবেদন নাকচ করেছেন। এখানে বিতর্কের কোনো সুযোগ আছে বলে আমার মনে হয় না। কিন্তু এখান তারা নিজেদের দলে নেতৃত্ব বজায় রাখার জন্য এই সব আজে বাজে কথাবার্তা বলছে।

বৃহস্পতিবার সকালে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দিয়ে তাকে উন্নত চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ দেন আদালত। এরপর বেগম জিয়ার মুক্তির দাবিতে আগামী রোববার (১৫ ডিসেম্বর) সারাদেশে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করার ঘোষণা দেয় বিএনপি। একই দিন ঢাকায় দুপুর ২টার পর প্রতিটি থানায় সমাবেশ ও মিছিল করবে।
বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সিনিয়র নেতা এবং খালেদা আইনজীবীদের সঙ্গে বৈঠকের পর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা করা হয়। ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে মামলাটি করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তদন্ত শেষে ২০১২ সালে খালেদা জিয়াসহ চার জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ খালেদাসহ চার আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। সাক্ষ্যগ্রহণ কার্যক্রম শেষ হলে দুদকের পক্ষে এই মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণা করা হয়।

SHARE